গোয়ালন্দে বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে কৃষকের মুখে হাসি - Nagorik Vabna
  1. info.nagorikvabna@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. holysiamsrabon@gmail.com : Holy Siam Srabon : Holy Siam Srabon
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul Islam : Mohaiminul Islam
  5. ranadbf@gmail.com : rana :
  6. rifanahmed83@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  7. newsrobiraj@gmail.com : Robiul Islam : Robiul Islam
গোয়ালন্দে বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে কৃষকের মুখে হাসি - Nagorik Vabna
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৮:১৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
দেশব্যাপী প্রচার ও প্রসারের লক্ষে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা সিভি পাঠান info.nagorikvabna@gmail.com অথবা হটলাইন 09602111973-এ ফোন করুন।
শিরোনাম :

গোয়ালন্দে বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে কৃষকের মুখে হাসি

  • সর্বশেষ পরিমার্জন : বুধবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১২৭ বার পড়া হয়েছে

মোঃ সিরাজুল ইসলাম গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধিঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় আগাম জাতের এ আর মালিক ফিডস্ (প্রাঃ) লিঃ এর বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে সাফল্য পেয়েছে ২নং বেপারী পাড়ার কৃষক মো. ইউছুপ ফকির। এ সাফল্যকে উপজেলা ব্যাপি ছড়িয়ে দিতে ইতিমধ্যে এ আর মালিক ফিডস্ (প্রাঃ) লিঃ এর আয়োজনে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ২নং বেপারী পাড়া এলাকায় রেজাল্ট শেয়ারিং মিটিং অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে কৃষক ইউছুপ ফকির বলেন, আমি এ বছর ২৭ শতাংশ জমিতে আগাম জাতের বাহুবলী টমেটা বীজ রোপন করেছি। ২৭ শতাংশ জমিতে টমেটো রোপনে সার ও কীট নাশকসহ মোট খরচ হয়েছে ১০ হাজার টাকা। এখন পর্যন্ত আমি ৪৫হাজার টাকার টমেটো বাজারে বিক্রি করেছি। আরো ৫৫-৭৫ হাজার টাকার টমেটো বিক্রি করবো অর্থাৎ এ থেকে সব মিলিয়ে কমপক্ষে ১ লাখ থেকে ১লাখ ২০হাজার টাকার টমেটো বিক্রি হবে বলেও জানান তিনি। এই ২নং বেপারী পাড়া এলাকাটি চরাঞ্চলের হওয়ায় বর্ষা মৌসুমে পলি মাটি পরে জমির উর্বরতা বাড়ে। তাই এই অঞ্চলে সব ধরনের সবজিরই ভালো ফলন হয়। বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে গত বছরের তুলনায় এ বছর অনেক বেশী ফলন হয়েছে তাছাড়া অন্যান্য জাতের তুলনায় এ জাতের টমেটোতে বাজারে দামও কেজিতে ২-৩ টাকা বেশী পাওয়া যায়। আমাদের এলাকার অনেক কৃষকরা এ জাতের টমেটো চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে। আগামী বছর এ এলাকায় ৫০-৬০ একর জমিতে এই জাতটি চাষ হবে বলে আমা করছি।

এ আর মালিক সিডস এর এরিয়া ম্যানেজার (মার্কেট ডেভেলপমেন্ট) সঞ্জয় পাল বলেন, কৃষি অফিসের সার্বিক সহযোগিতায় আমরা মুলত বিভিন্ন জায়গায় মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের মাঝে টেকনিক্যাল সাপোর্ট দিয়ে থাকি। এ আর মালিক সিডস এর বাহুবলী জাতের বীজের সাপোর্টটা এমডিই আশরাফুল আলমের মাধ্যমে ইউছুপ ফকিরকে দিয়েছিলাম । সে এ জাতের টমেটো চাষ করে সফল হয়েছে। আমরা পর্যায়ক্রমে এ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এ আর মালিক সীডস এর পক্ষ থেকে বাহুবলীসহ অন্যান্য জাত গুলো চাষে কৃষকদের উদ্ভুদ্ধ করবো। এর জন্য আমাদের মার্কেট ডেভেলপমেন্ট টিম সারা দেশ ব্যাপি কাজ করে যাচ্ছে।

গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রকিবুল ইসলাম বলেন, টমেটা চাষে কৃষি বিভাগ থেকে কৃষকদের বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া দেওয়া হয়েছে প্রনোদনাও। টমেটোর রোগ বালাই থেকে মুক্তির জন্য মাঠ পর্যায়ে আমরা খোঁজ খবর রাখছি। এ আর মালিক সীডস এর আগাম বাহুবলী জাতের টমোটো চাষে ভালো ফলন ও ভালো দাম পাওয়ায় আগামীতে এ অঞ্চলে টমেটোর আবাদ আরো বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে। উপজেলা কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে আমি এ আর মালিক সীডস্ এর সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তারা কৃষকদের মাঝে উন্নত মানের বীজ সরবরাহের মাধ্যমে দেশ এবং জাতীর উন্নতি সাধনে কাজ করছে।




আরো সংবাদ পড়ুন







নাগরিক ভাবনা লাইব্রেরী

Sat Sun Mon Tue Wed Thu Fri
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031