অস্থিতিশীল হয়ে উঠছে এশিয়া, লাগতে পারে সংঘাত - Nagorik Vabna
  1. info.nagorikvabna@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. holysiamsrabon@gmail.com : Holy Siam Srabon : Holy Siam Srabon
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul Islam : Mohaiminul Islam
  5. ranadbf@gmail.com : rana :
  6. rifanahmed83@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  7. newsrobiraj@gmail.com : Robiul Islam : Robiul Islam
অস্থিতিশীল হয়ে উঠছে এশিয়া, লাগতে পারে সংঘাত - Nagorik Vabna
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশব্যাপী প্রচার ও প্রসারের লক্ষে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা সিভি পাঠান info.nagorikvabna@gmail.com অথবা হটলাইন 09602111973-এ ফোন করুন।

অস্থিতিশীল হয়ে উঠছে এশিয়া, লাগতে পারে সংঘাত

  • সর্বশেষ পরিমার্জন : শুক্রবার, ৫ আগস্ট, ২০২২
  • ১১ বার পড়া হয়েছে

তাইওয়ান প্রণালীতে উত্তেজনাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক কারণে এশিয়া মহাদেশের পরিস্থিতি ক্রমেই অস্থিতিশীল হয়ে উঠছে। এ অবস্থায় যেকোনও ভুল হিসেব-নিকেশ প্রধান প্রধান শক্তিধর দেশগুলোর মাঝে গুরুতর সংঘাতের সৃষ্টি করতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর আঞ্চলিক জোট আসিয়ান।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির বিতর্কিত তাইওয়ান সফরের পর চীন-তাইওয়ান-যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনার বিষয়ে বৃহস্পতিবার এই সতর্ক বার্তা দেওয়া হয়েছে।

আসিয়ান কম্বোডিয়ায় ২৭টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাথে একটি বৈঠকের আয়োজন করছে। বুধবার ন্যান্সি পেলোসির সফরের পর তাইওয়ানের চারপাশে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, সেটিই এই বৈঠকের প্রধান আলোচ্য বিষয়ে পরিণত হয়েছে। এমনকি অনেকে তাইওয়ানকে ঘিরে এশিয়ায় নতুন করে সংঘাতের আশঙ্কাও প্রকাশ করেছেন।

সর্বোচ্চ সংযম প্রদর্শন এবং সব পক্ষকে উসকানি থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে জোটের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সব পক্ষের মধ্যে শান্তিপূর্ণ সংলাপ আয়োজনে গঠনমূলক ভূমিকা পালনে প্রস্তুত আসিয়ান।

গত ২৫ বছরের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায়ের রাজনীতিক হিসেবে বুধবার স্ব-শাসিত তাইওয়ান সফর করেছেন পেলোসি; যা চীনে ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে। পেলোসির সফরের পর তাইওয়ানের চারপাশে এযাবৎকালের সর্ববৃহৎ সামরিক মহড়া ও অন্যান্য তৎপরতা শুরু করেছে চীন। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বেলা ১২টায় শুরু হওয়া এই মহড়া থেকে তাইওয়ানের বিভিন্ন এলাকার জলসীমার কাছে অন্তত ১১টি ডংফেং ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে চীন।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলো সাধারণত চীন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সম্পর্কে ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য সতর্কতার সাথে পথ চলার প্রবণতা দেখায়। যাতে বিশ্বের প্রধান এই দুই শক্তির কোনও পক্ষ ক্ষুব্ধ না হয়, তা নিয়ে সতর্ক থাকে এশীয় দেশগুলো।

কম্বোডিয়ায় আসিয়ানের বৈঠকে যোগ দিতে যাওয়া চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই পেলোসির তাইওয়ান সফরকে ‘পাগলামি, দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং অত্যন্ত অযৌক্তিক’ বলে মন্তব্য করেছেন।

এদিকে, আসিয়ানের বৈঠকের উদ্বোধনী বক্তৃতায় মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেছেন, তিনি স্বীকার করেন তাইওয়ান ইস্যুটি সবার মনে রয়েছে এবং ওয়াশিংটনের অবস্থান পরিবর্তন হয়নি। তাইওয়ান প্রণালীজুড়ে শান্তি ও স্থিতিশীলতার জন্য স্থায়ী সমাধানের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহ রয়েছে।

‘আমরা স্থিতাবস্থা পরিবর্তনের যে কোনো একতরফা প্রচেষ্টার বিরোধিতা করি, বিশেষ করে বলপ্রয়োগের মাধ্যমে… এবং আমি জোর দিয়ে বলতে চাই, আমাদের অবস্থানের কিছুই পরিবর্তন হয়নি।’

গত মঙ্গলবার রাতে তাইওয়ানের রাজধানী তাইপে পৌঁছান ন্যান্সি পেলাসি। ১৯৯৭ সালের পর এটি কোনো মার্কিন শীর্ষ রাজনীতিকের তাইওয়ান সফর। এই সফরকে কেন্দ্র করে চীন-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে উঠেছে।

দফায় দফায় হুঁশিয়ারি দেওয়া সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের এই স্পিকারের তাইওয়ান সফরকে মোটেই সহজভাবে নেয়নি চীন। আর তাই ন্যান্সির সফরের প্রতিক্রিয়ায় রাতেই তাইওয়ানে সামরিক পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে ঘোষণা দেয় চীনা প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

সূত্র: রয়টার্স

 

নাগরিক ভাবনা/এইচএসএস




আরো সংবাদ পড়ুন







নাগরিক ভাবনা লাইব্রেরী

Sat Sun Mon Tue Wed Thu Fri
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031