নায়িকা পপির বিয়ে-অন্তঃসত্ত্বা, যা বললেন ফেরদৌস নায়িকা পপির বিয়ে-অন্তঃসত্ত্বা, যা বললেন ফেরদৌস – Nagorik Vabna
  1. info.nagorikvabna@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  2. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul Islam : Mohaiminul Islam
শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১০:৪৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশব্যাপী প্রচার ও প্রসারের লক্ষে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা সিভি পাঠান info.nagorikvabna@gmail.com অথবা হটলাইন 09602111973-এ ফোন করুন।




নায়িকা পপির বিয়ে-অন্তঃসত্ত্বা, যা বললেন ফেরদৌস

  • সর্বশেষ পরিমার্জন : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১
  • ৪২ বার পড়া হয়েছে

‘ভালোবাসার প্রজাপতি’ নামক একটি চলচ্চিত্রে সর্বশেষ ২০২০-এর জুনে কাজ করেন নায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। ছবিটির প্রায় ২০ শতাংশ কাজ এখনও বাকি। শেষ করতে আরও দুদিন শুটিং করতে হবে। কিন্তু খবর নেই পপির। মুঠোফোন বন্ধ, নিকটজনরা কেউ খোঁজ দিতে পারছেন না। নায়িকার বাসায় গিয়ে ফিরে এসেছেন ছবির পরিচালক মাসুমা তানি।

ছয় মাস আগে ‘ডাইরেক্ট অ্যাকশন’ ছবির শুটিং শেষ করেন পপি। পরিচালক সাদেক সিদ্দিকী জানান, ডাবিং না করেই পপি উধাও। দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর আরেকজনকে দিয়ে ডাবিং করাতে হয়েছে। ছবিটি এখন মুক্তির জন্য প্রস্তুত। প্রচারের জন্য এখন পপিকে দরকার।

সাদেক সিদ্দিকী বলেন, নায়িকা যদি টেলিভিশন, পত্রিকার সঙ্গে কথা বলতেন, নিজের ফেসবুকে প্রচার চালাতেন, ছবিটি সম্পর্কে মানুষ জানত। ছবিটি দেখার আগ্রহ তৈরি হতো।

এভাবেই পরিচালক-প্রযোজকদের ফাঁসিয়ে উধাও ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। কয়েক মাস ধরে তিনি ধরাছোঁয়ার বাইরে। কই আছেন, কী করছেন কেউ-ই জানেন না! নিকটাত্মীয়রাও তার খবর দিতে অপারগ।

পপির এমন আড়ালে চলে যাওয়া নতুন নয়। তবে এবারের মতো দীর্ঘ আত্মগোপনে আগে কখনও যাননি পপি। শাকিল খানের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল যখন, সে সময়ও আত্মগোপন করেছিলেন তিনি। তবে তার মেয়াদ ছিল অল্প কিছু দিন। এবারে কোথায় লুকালেন তিনি! প্রায় ছয় মাস ধরে হন্যে হয়ে তাকে খুঁজছেন তার প্রযোজকরা।

বারিধারার বাসায় নেই। বেশ কিছু দিন ধরে মোবাইল নম্বরও বন্ধ। এমনকি যে ফেসবুক অ্যাকাউন্টে সরব থাকতেন সবসময়, সেটিও এখন নিষ্ক্রিয়। বন্ধু, সহকর্মী, সংবাদকর্মী— কেউই তার নাগাল পাচ্ছেন না।

তার এই অন্তর্ধানে গুঞ্জন ছড়াচ্ছে। পপি বিয়ে করে সংসারী হয়েছেন— এমন গুঞ্জন বহুদিনের। এবার শোনা যাচ্ছে— ঢালিউড নায়িকা মা হতে চলেছেন। এ কারণেই নিজেকে আড়ালে রেখেছেন। বিয়ের কথাই স্বীকার করেননি, সন্তানসম্ভবা হওয়ার কথা কী করে বলেন? এ কারণেই নিকটাত্মীয়দের থেকেও দূরে পপি।

তারকাদের বিয়ে গোপন রাখার বিষয়টি নতুন কিছু নয়। তাই বলে এভাবে সবার সঙ্গে কেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিলেন পপি? আর বিয়ে যদি করেই থাকেন, সেটা লুকাচ্ছেনই বা কেন?

সিনেমাপাড়ার গুঞ্জন, পপি আর অভিনয়ে ফিরবেন না। তিনি সংসার নিয়েই ব্যস্ত থাকতে চাচ্ছেন। সেখানেই সময় দিচ্ছেন। এজন্য এখন কারো সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন না। নিজেকে আড়াল করে রেখেছেন।

গেল মার্চে পপির বিয়ের গুঞ্জনের খবর গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়। নায়িকা নাকি নিজের ইস্কাটনের বাসাও ছেড়ে দিয়েছেন। থাকছেন কূটনৈতিক পাড়ায়। স্বামীর দেয়া ফ্ল্যাটেই থাকছেন তিনি।

এর আগে গত বছরের আগস্টেও তার বিয়ের গুজব রটেছিল। কিন্তু বিয়ের খবর সত্য নয় বলে তখন পপি গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন। তবে এবার বিয়ের গুঞ্জনে বিষয়ে পপি এখনও কোনো মন্তব্য করেননি। এছাড়া পপির ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনটি এখনও বন্ধ রয়েছে।

সবশেষ গত বছরের ডিসেম্বরের ২৩ তারিখ ফেসবুকে পোস্ট করেছেন পপি। এরপর থেকেই অনেকটাই উধাও পপি।

কিন্তু পপি কেন আড়ালে রয়েছেন? এ প্রসঙ্গে নায়িকার ঘনিষ্ঠজনরাও বলতে পারেননি। কারণ সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ রেখেছেন তিনি। সিনেমার লোকজনদের সঙ্গেও তার যোগাযোগ পুরোপুরি বন্ধ।

পপির দীর্ঘদিনের সহকর্মী ও কাছের বন্ধু নায়ক চিত্রনায়ক ফেরদৌস। পপির সঙ্গে তার শেষ দেখা হয়েছে ফিল্ম ক্লাবের নির্বাচনের সময়। ফোনে কথা হয়েছে, সে–ও মাস তিনেক। তার বিয়ের ব্যাপারটি তিনিও জানেন না। ফেরদৌস বলেন, ‘বিয়ের খবর লোকমুখে শুনেছি। পপি আমার ভালো বন্ধু। কিন্তু তার ব্যক্তিগত অনেক কথা আমাকে না–ও বলতে পারেন। মাস তিনেক আগে বারিধারায় তার নতুন ফ্ল্যাট কেনার খবর দিয়েছিলেন ফোনে। বলেছিলেন, বাড়িটি সুন্দর করে সাজাবেন—এতটুকুই।

তবে পপি যে বিয়ে করেছেন সেই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে তার নিকটজনের কাছ থেকেও। পপির খবর নিতে তার বাবা আমির হোসেনের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হয়। খুলনা থেকে তিনি বলেন, পপি ঢাকাতেই আছে। পপির বিয়ে প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বলেন, আমিও তেমনই শুনেছি। এর বেশি আমার জানা নেই।

পপির নিকটাত্মীয় ঢালিউডের বিউটি কুইন মৌসুমী। তারা সম্পর্কে মামাতো-ফুফাতো বোন। সেই সূত্রে নায়ক ওমর সানি পপির দুলাভাই। শুধু তাই নয়, পপির প্রথম সিনেমা কুলির নায়কও সানি।

সানি-মৌসুমীর পরিবারও কিছু জানে না পপির অন্তর্ধান নিয়ে। কয়েক মাস হলো পপির সঙ্গে যোগাযোগ নেই। এমনকি মৌসুমীর ছেলে ফারদিনের বিয়েতেও আসেননি। এ বিষয়ে ওমর সানি বলেন, ‘ফারদিনের খুব ইচ্ছা ছিল, বিয়েতে পপি খালা থাকবে। কিন্তু কোনোভাবেই তার সন্ধান পাইনি। তাকে না পেয়ে ছেলের বিয়ের সময় মৌসুমী কেঁদেছে।

তবে পপির বিয়ের গুজব নিয়ে কিছু বলতে চাননি ওমর সানি। ‘এ ব্যাপারে কিছুই বলব না। বিয়ে করুক বা না করুক, যেখানেই থাকুক, সে যেন সুখে থাকে, ভালো থাকে। তবে আত্মীয় হিসেবে আমাদের সঙ্গে তার যোগাযোগ রাখা উচিত ছিল।’

পপির সহকর্মী ও ভক্তদের প্রত্যাশা— জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী এই অভিনেত্রীর জীবনে যা–ই ঘটুক না কেন, তিনি শিগগিরই ফিরবেন সবার মাঝে, করবেন সব জল্পনাকল্পনার অবসান।




সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

আরো সংবাদ পড়ুন




নাগরিক ভাবনা লাইব্রেরী

Sat Sun Mon Tue Wed Thu Fri
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31