ঈদে করোনা বাড়ার আশংকা, স্বাস্থ্যবিধিতে অবহেলা করলেই বিপদ ঈদে করোনা বাড়ার আশংকা, স্বাস্থ্যবিধিতে অবহেলা করলেই বিপদ – Nagorik Vabna
  1. info.nagorikvabna@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  2. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul Islam : Mohaiminul Islam
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ১১:১৬ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
দেশব্যাপী প্রচার ও প্রসারের লক্ষে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা সিভি পাঠান info.nagorikvabna@gmail.com অথবা হটলাইন 09602111973-এ ফোন করুন।




ঈদে করোনা বাড়ার আশংকা, স্বাস্থ্যবিধিতে অবহেলা করলেই বিপদ

  • সর্বশেষ পরিমার্জন : সোমবার, ৩ মে, ২০২১
  • ১৫ বার পড়া হয়েছে

মহামারি করোনা দেশে যে দ্বিতীয় আঘাত হেনেছে তা কমেছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।তবে সংস্থাটি বলেছে, করোনা সংক্রমণ কমলেও এতে আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই।ঈদকে কেন্দ্র করে যে কোনো মুহূর্তে আবার করোনা সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে বলে আশংকা করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

সোমবার দুপুরে দেশের করোনা পরিস্থিতির সর্বশেষ তথ্য জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম ভার্চুয়াল বুলেটিনে এ কথা বলেন।

ডা. নাজমুল ইসলাম বলেন, করোনার যে দ্বিতীয় ঢেউ আমাদের মধ্যে এসেছিল, সেটি কমতে শুরু করেছে। আমরা যদি সর্বশেষ গতকাল (রোববার) পর্যন্ত দেখি, শনাক্তের হার ১০ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। এতে করে আমাদের আত্মতুষ্টি বা করোনা চলে গেছে, এ রকম ভাবার সুযোগ নেই। এখন ঈদকে কেন্দ্র করে যে কোনো মুহূর্তে আবার করোনা সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে।

তিনি বলেন, আমরা দেখছি যে, বিভিন্ন শপিংমলে, দোকানে মানুষের উপচেপড়া ভিড় তৈরি হয়েছে। অনেকেই ঈদের বাজার করতে বের হচ্ছেন। সেখানে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই যে স্বাস্থ্যবিধি মানার কথা ছিল, সেটি করা হচ্ছে না। মনে রাখতে হবে স্বাস্থ্যবিধি পালনে অবহেলা করছেন মানেই কিন্তু আপনারা আশপাশ থেকে সংক্রমিত হয়ে পরিবার ও নিকটজনকে বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারেন।

ডা. নাজমুল ইসলাম বলেন, আমরা দেখছি অনেকেই বাইরে মাস্ক খুলে ইফতার খাচ্ছেন, তারা ভাবছেন এতে করে বিপদের আশংকা নেই। এতেও সংক্রমণের আশংকা রয়েছে। আপনারা বাইরে এসে খাবার গ্রহণ একেবারেই এড়িয়ে চলুন। বাইরে এসে কোনো অবস্থাতেই যেন মাস্ক খোলা না হয়, সঠিক নিয়মে যেন সেটি ব্যবহার করা হয়। শারীরিক দূরত্বও যেন মেনে চলা হয়, সেদিকে খেয়াল রাখার আহ্বান জানান তিনি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এই মুখপাত্র বলেন, আমরা যে বিধিনিষেধের কথা বলছি, এটা কিন্তু আমাদের সবাইকে মিলেমিশে করতে হবে। কাঁচাবাজার, দোকানপাট, শপিংমল, রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ যারা আছেন প্রত্যেকে যদি বিধিনিষেধগুলো প্রতিপালন করেন এবং স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত নির্দেশনাগুলো নির্দিষ্ট স্থানে ঝুলিয়ে রাখেন এবং নিজেরা সচেতন থাকেন তাহলে কাজটি সহজ হয়ে যায়।

করোনার টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার পর পরিস্থিতির কারণে যাদেরকে অন্য জেলায় যেতে হচ্ছে বা থাকতে হচ্ছে, তাদের জন্য দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া সহজ করা হয়েছে। এখন থেকে এক জেলা থেকে আরেক জেলায় গিয়েও দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যাবে বলেও জানিয়েছেন ডা. নাজমুল ইসলাম।




সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

আরো সংবাদ পড়ুন




নাগরিক ভাবনা লাইব্রেরী

Sat Sun Mon Tue Wed Thu Fri
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031