1. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  2. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  3. news.rifan@gmail.com : admin :
  4. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
  5. srhafiz83@gmail.com : Hafizur Rahman : Hafizur Rahman
  6. elmaali61@gmail.com : Elma Ali : Elma Ali
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মাদারগঞ্জে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ   কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য পদে উপ-নির্বাচনে লড়ছেন মোহাম্মদ ফাহিম ভূঞা  শ্রীমঙ্গলে চাঞ্চল্যকর আইনজীবী হত্যাকাণ্ডের ২জন গ্রেপ্তার মৌলভীবাজার জেলা জামায়াতে ইসলাম আমির গ্রেপ্তার ৫০ টাকার লোভ দেখিয়ে দ্বিতীয় শ্রেনীর মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ মুক্তিযোদ্ধাদের কটুক্তি করার প্রতিবাদ ও অধিকার বাস্তবায়নের দাবীতে পিরোজপুরে মানববন্ধন লোহাগড়ায় পৈত্রিক সম্পত্তি লিখে নিতে বোনকে জিম্মি করবার অভিযোগ কুষ্টিয়ায় কোটা সংস্কারের আন্দোলনে ৮ মোটরসাইকেলে আগুন, গুলিবিদ্ধ  ১  তালার কুখ্যাত ডাকাত রিয়াজুল গ্রেফতার কোটা বিরোধী আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মাদারীপুর জেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল
বিশেষ ঘোষণা :
সারাদেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা শীঘ্রই 09602111973 অথবা 01819-242905 নাম্বারে যোগাযোগ করুন।

ক্লাস শুরু না হলে ঈদের পর আমরণ অনশনের হুঁশিয়ারি

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: বৃহস্পতিবার, ৬ জুন, ২০২৪
  • ১৯ বার পঠিত

কুবি প্রতিনিধি: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) ১৪তম আবর্তনের (২০১৯-২০ সেশন) শিক্ষার্থীরা এবার ক্যাম্পাস খোলাসহ দুই দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আমরণ অনশন ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধের মতো সিদ্ধান্ত নেয়ার আল্টিমেটাম দিয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪তম ব্যাচের কয়েকজন শিক্ষার্থীর সাথে কথা বলে এসব বিষয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। শিক্ষার্থীরা জানায়, তাদের পক্ষ থেকে দুই দফা দাবি পেশ করা হয়েছে।

দাবিসমূহ হলো-

১. অনতিবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দিতে হবে এবং

২. শিক্ষক সমিতি ক্লাস বর্জন না করে অন্য উপায়ে তাদের দাবি আদায় করবে ও সেশনজট নিরসনে রিকোভার প্ল্যান করে তা বাস্তবায়ন করতে হবে। নির্দিষ্ট সময়ের মাঝে ক্যাম্পাস না খোলা হলে পরবর্তী কর্মসূচি হিসেবে দুটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সিদ্ধান্তগুলো হলো- ঈদের পরে ২৪/২৫ তারিখ গণসাক্ষর গ্রহণ করে তা শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ইউজিসি ও প্রধানমন্ত্রীর নিকট প্রেরণ এবং একটি নির্দিষ্ট সময়ের আল্টিমেটাম দেয়া হবে। তারপরেও বিশ্ববিদ্যালয় না খুললে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল দপ্তরে তালা দেয়া, আমরণ অনশন ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধের মতো কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে।

এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের ১৪তম আবর্তনের শিক্ষার্থী মো. মাহিনুর রহমান নায়িম বলেন, ‘ঈদের বন্ধ পরবর্তী যে সময় অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্বাভাবিক কার্যক্রমে ফিরে যাবে, ঠিক একই সময় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ও স্বাভাবিক কার্যক্রমে ফিরতে হবে। যদি কার্যক্রম শুরু না হয় তাহলে আমরা পরিস্থিতি বিবেচনায় কঠোর আন্দোলন শুরু করবো।’

আন্দোলনের কর্মসূচি কী কী হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে বিশ্বরোড অবরোধের কর্মসূচি আসবে। বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকদের জানা উচিত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সাধারণ নাগরিকের ভ্যাট-ট্যাক্সের টাকায় পড়াশোনা করতে এসে কিভাবে অহেতুক তাদের সময় নষ্ট করা হচ্ছে।’

ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষার্থী সাদিয়া আফরিন বলেন, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০ এ ভর্তি হয়েছিলাম কিন্তু করোনা মহামারির জন্য আমরা ইতিমধ্যে বড় একটি সেশনজটে পড়ে গিয়েছি। বর্তমানে ভিসি এবং শিক্ষক সমিতির দ্বন্দ্বে প্রায় তিন মাস ধরে কোনো প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম হচ্ছে না। এই প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে আমরা প্রতিনিয়ত পিছিয়ে পড়ছি। তাই যথাযথ সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম চালু করা হোক এবং শিক্ষক সমিতি ক্লাস বর্জন দিবে না তার প্রতিশ্রুতি দিক। সাথে সেশন জট নিরসনের বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ নিতে হবে। অন্যথায় আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিভাবকদের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন করা ছাড়া কোনো উপায় থাকবে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...

আপনি কি লেখা পাঠাতে চান?

সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা শীঘ্রই 09602111973 অথবা 01819-242905 নাম্বারে যোগাযোগ করুন...

X