1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১২:৪২ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণা :
সারাদেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা শীঘ্রই 09602111973 অথবা 01819-242905 নাম্বারে যোগাযোগ করুন।

খুলনা ৬ টি আসনে ৩৪ জন প্রার্থী ভোটযুদ্ধে!

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ১০২ বার পঠিত

বিপ্লব সাহা, খুলনা ব্যুরো: খুলনা জেলার ছয়টি নির্বাচনী আসন থেকে ৫৯ জন মনোনয়ন জমা দানকারী প্রার্থীদের মধ্যো জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা কর্তৃক নির্বাচনের সংবিধান পরিপন্থী মতে বৈধ ভাবে প্রার্থী হিসেবে মাত্র ৩৪ জন প্রার্থী নির্বাচনের যুদ্ধ টিকে রইলেন। উল্লেখ্য খুলনা জেলা নির্বাচন কমিশনারের রিটার্নিং অফিসার এর তথ্যসূত্র থেকে পাওয়া তথ্য মতে আগামী ৭ জানুয়ারি ২০২৪ দেশের গুরুত্বপূর্ণ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
ফলে গত ১৭ ডিসেম্বর রোববার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন থাকায় ঐদিন খুলনা ছয়টি আসনের মধ্য পাঁচ প্রার্থী মনোনয়নপত্র করেছেন। সেই ক্ষেত্রে নির্বাচনী লড়াইয়ের টিকে রইলেন ৩৪ জন প্রার্থী।

এ সময় খুলনা জেলা প্রশাসক খন্দকার ইয়াসির আরেফীন সকল গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ এ নির্বাচনে ৩৯ জন প্রার্থীর মধ্যে ওই দিন জাকের পার্টির ৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে বর্তমানে ৩৪ জন প্রার্থী রয়েছেন। তবে বাতিল হওয়ার কয়েকজন প্রার্থী হাইকোর্টে আপিল করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অতএব তাদের আপিলের পরে বোঝা যাবে কতজন প্রার্থী নির্বাচন যুদ্ধে চূড়ান্তভাবে লড়বে ।

যারা প্রত্যাহার করলেন তাদের মধ্য প্রত্যাহার করা জাকের পার্টির ৫ জন হলেন খুলনা – ১ আসনের মোহাম্মদ আজিজুর রহমান, খুলনা- ২ ফরিদা পারভিন, খুলনা -৪ আসনের আনসার আলী, খুলনা-৫ আসনের সামাদ শেখ, ও খুলনা- ৬ আসনের এক মর্তুজা আল মামুন। তবে আরো উল্লেখ রয়েছে যে খুলনা- ৩ আসন থেকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি জাকের পার্টি ও খুলনা সাংগঠনিক বিভাগের সভাপতি এস এম সাব্বির হোসেন।

এ বিষয়ে খুলনা -৩ আসনের জাকের পার্টির পার্টি এস এম সাব্বির হোসেন বলেন দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমাদের পাঁচজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমি খুলনা- ৩ আসন থেকে এবারের নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি।

পাশাপাশি নির্বাচনী লড়াই টিকে রইলেন যারা তাদের মধ্যে রয়েছেন খুলনা-১ দাকোপ বটিয়াঘাটা আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ননী গোপাল মণ্ডল, জাতীয় পার্টির কাজী হাসানুর রশিদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রশান্ত কুমার রায় ও তৃণমূল বিএনপির গোবিন্দ চন্দ্র প্রামানিক।

খুলনা-২ সদর সোনাডাঙ্গা আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ সালাউদ্দিন জুয়েল , জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ গাউসুল আজম, বাংলাদেশ কংগ্রেস দেবদাস সরকার, সংস্কৃতিক মুক্তিজোট এর বাবু কুমার রায়, বি এন এম প্রার্থী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল আমিন,ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ সাইদুর রহমান।

খুলনা-৩ (দৌলতপুর খালিশপুর খান জাহান আলী) আসন থেকে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, জাতীয় পার্টির আবদুল্লাহ আল মামুন, জাকের পার্টির এস এম সাব্বির হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ফাতেমা জামান সাথী।

খুলনা-৪ (রুপসা- তেরখাদা- দিঘলিয়া) ভাষণ থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুস সালাম মুর্শেদী, জাতীয় পার্টির মোঃ ফরহাদ আহমেদ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান,তৃণমূল বিএনপি’র শেখ হাবিবুর রহমান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মনিরা সুলতানা, রিয়াজ উদ্দিন, বিএনএম প্রার্থী এস এম আজমল হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ জুয়েল রানা, স্বতন্ত্র প্রার্থী এমডি এহসানুল হক, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ রেজভী আলম।

খুলনা-৫ (ডুমুরিয়া -ফুলতলা) আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ,জাতীয় পার্টির মোঃ শহীদ আলম, ও বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির শেখ সেলিম আক্তার স্বপন। তাছাড়া খুলনা -৬ (কয়রা -পাইকগাছা) আসলে মোহাম্মদ রাশিদুজ্জামান, জাতীয় পার্টির মোঃ শফিকুল ইসলাম মধু, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি) মোহাম্মদ আবু সুফিয়ান, বাংলাদেশ কংগ্রেস প্রার্থী মির্জা গোলাম আযম, বিএনএম প্রার্থী এসএম নেওয়াজ মোরশেদ, তৃণমূল বিএনপির মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন খান,ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জিএম মাহবুব আলম।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...