1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :




ভবিষ্যতে আমেরিকাকে মানবাধিকার শেখাবে বাংলাদেশ: রাষ্ট্রপতি

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: সোমবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৮১ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন বলেছেন, আমেরিকা বাংলাদেশকে মানবাধিকার শেখাতে আসে। অথচ তাদের চেয়ে বাংলাদেশই বেশি মানবাধিকার মেনে চলে। ভবিষ্যতে আমেরিকাকে মানবাধিকার শেখাবে বাংলাদেশ।

তিনি আরও বলেন, ‘মানবাধিকার সনদ অক্ষরে অক্ষরে পালন করছে বাংলাদেশ।’

ফিলিস্তিনিদের রক্ষার জন্য বিশ্বনেতাদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘এখনই যুদ্ধবিরতি দিয়ে তাদের বাঁচাতে হবে। ফিলিস্তিনে নির্বিচারে মুসলমানদের হত্যা করা হচ্ছে। প্রতিদিন সেখানে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে। অথচ মুসলমানদের রক্ষার জন্য বিশ্ব মোড়লরা কিছু করছে না।’

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘মানবাধিকার শাশ্বত ও সর্বজনীন অধিকার। কিন্তু দুঃখজনক হলেও এটা সত্য যে, বিরাজমান বিশ্ব মানবাধিকার পরিস্থিতি বিবেকবান যেকোনো মানুষকেই ব্যথিত করবে। অনেক দেশ ও সংস্থা মানবাধিকারের নামে দ্বিচারিতায় লিপ্ত হচ্ছে।’

রাষ্ট্রপ্রধান সকল মানবাধিকার সংগঠনগুলোকে মানবাধিকার রক্ষায় সদা সজাগ থাকারও পরামর্শ দেন। দেশের যেখানেই মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটবে, সেখানেই জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের উপস্থিতি নিশ্চিত করারও জোর তাগিদ দেন তিনি।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘ছোট-বড়, ধনী-দরিদ্র ও দলমত নির্বিশেষে কমিশনকে নির্যাতিতদের পক্ষে এবং নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে উচ্চকণ্ঠে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।’

রাষ্ট্রপতি বলেন, কমিশন যাতে শোষিত ও নির্যাতিতদের কাছে আস্থা ও ভরসার প্রতীকে পরিণত হতে পারে সে লক্ষ্যে কমিশনকে নির্যাতিতদের পাশে দাঁড়াতে হবে এবং নির্যাতনকারীদের শাস্তি দানে সর্বাত্মক প্রয়াস অব্যাহত রাখতে হবে।

বাংলাদেশে মানবাধিকার সংস্কৃতির বিকাশ ও উন্নয়নের লক্ষ্যে গবেষণা ও প্রকাশনা বৃদ্ধি, মানবাধিকার লঙ্ঘনের ওপরে সার্বক্ষণিক নজরদারি বৃদ্ধি, মানবাধিকার বিষয়ক সচেতনতা সৃষ্টি ও অ্যাডভোকেসি কার্যক্রম পরিচালনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কমিশনকে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার কথাও বলেন।

রাষ্ট্রপ্রধান বলেন, ‘মানবাধিকার সুরক্ষায় পারস্পরিক সংলাপ, সভা, সেমিনার, ওয়ার্কশপ শিক্ষা ও প্রচারসহ সহযোগিতা বৃদ্ধির সকল কার্যক্রমে জনগণের সম্পৃক্ততা বাড়াতে হবে।’

n/v

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...