1. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  2. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  3. news.rifan@gmail.com : admin :
  4. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
  5. srhafiz83@gmail.com : Hafizur Rahman : Hafizur Rahman
  6. elmaali61@gmail.com : Elma Ali : Elma Ali
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিশেষ ঘোষণা :
সারাদেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা শীঘ্রই 09602111973 অথবা 01819-242905 নাম্বারে যোগাযোগ করুন।

রূপগঞ্জে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: রবিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৬৬ বার পঠিত

শাকিল আহম্মেদ, স্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদ পাওয়া নিয়ে দ্বন্দের জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন দ্বীন ইসলাম দিলীপ (৩০) নামের এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শুক্রবার (০৩ নভেম্বর) রাতে উপজেলার মুড়াপাড়া ইউনিয়নের দড়িকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার (০৫ নভেম্বর) সকালে তার মৃত্যু হয়।

নিহত দ্বীন ইসলাম দিলীপ মুড়াপাড়া ইউনিয়নের দরিকান্দি মৃত আলী হোসেনের ছেলে। তিনি ওই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি প্রত্যাশী ছিল।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নিহত দিলীপ মুড়াপাড়া ইউনিয়নের ওই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদ প্রত্যাশী ছিল। অপরদিকে, একই পদ প্রত্যাশী ছিল মুড়াপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহর ছেলে পিয়াল। এ সভাপতি পদকে নিয়ে পিয়াল ও দিলীপের মাঝে বেশকিছুদিন ধরেই বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে গত শুক্রবার বিকেলে পিয়ালের সঙ্গে দিলীপের বাগবিতন্ডা হয়। পরে রাতে দ্বীন ইসলাম দিলীপকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পিয়ালসহ তার লোকজন। স্থানীয়রা আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দিলীপ কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। রোববার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দিলীপের মৃত্যু হয়।

নিহতের স্ত্রী রূপালী বেগম বলেন, আমার স্বামী দিলীপ দীর্ঘদিন মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলমাছের সঙ্গে যুবলীগের রাজনীতি করে আসছেন। দিলীপ ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদ প্রত্যাশী ছিলেন । একই ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পাভেলের ছোট ভাই পিয়ালও ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি পদ প্রত্যাশী ছিল। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে আমার স্বামী দিলীপকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে পিয়ালসহ তার লোকজন কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। পরে রোববার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

দ্বীন ইসলাম দিলীপ মৃত্যুর আগে পিয়াল, বিপ্লব ও ইমন তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে বলে জানিয়েছিলেন। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ বলেন, নিহতের স্ত্রী রূপালী বেগম বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...

আপনি কি লেখা পাঠাতে চান?

সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা শীঘ্রই 09602111973 অথবা 01819-242905 নাম্বারে যোগাযোগ করুন...

X