1. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  2. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  3. news.rifan@gmail.com : admin :
  4. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
  5. srhafiz83@gmail.com : Hafizur Rahman : Hafizur Rahman
  6. elmaali61@gmail.com : Elma Ali : Elma Ali
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৩:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রোড এক্সিডেন্টে আবারো ঝরে পড়ল তরতাজা একটি প্রাণ কনস্টেবল নিয়োগে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে সাবেক এসপিসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে দুদকের চার্জশিট দাখিল শেখ হাসিনা হচ্ছেন উন্নয়নের জাদুকর – শ ম রেজাউল করিম এমপি বাগমারায় অনলাইন জুয়ার কালো থাবায় নিঃস্ব হচ্ছে তরুণ-যুব সমাজ পঞ্চগড়ে কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাৎ দুদকের অভিযান নড়াইলে সাংবাদিকের পরিবারের উপর হামলা ও প্রান নাশের হুমকির অভিযোগ ঘণ্টাখানেকের বৃষ্টিতেই ডুবে যায় রাজধানী নবীনগর থানা প্রেসক্লাবের ত্রিবার্ষিক কমিটি গঠন সভাপতি জসিম সম্পাদক রুবেল কালকিনিতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত-১ আহত-৫ স্থানীয় মুদ্রার ব্যবহার বাড়াতে সম্মত বাংলাদেশ-চীন
বিশেষ ঘোষণা :
সারাদেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা শীঘ্রই 09602111973 অথবা 01819-242905 নাম্বারে যোগাযোগ করুন।

দেশের আরও তিনটি প্রকল্পের দার উন্মোচন করলেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: বুধবার, ১ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৮৬ বার পঠিত

বিপ্লব সাহা,খুলনা ব্যুরো: বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকল বাধা বিপত্তি ও নিন্দুকদের সমালোচনাকে পিছু ফেলে দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে তিনটি প্রকল্পর উন্নয়নের মাধ্যমে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল দেশে দুটি রেল ও একটি সুপার থার্মাল পাওয়ার প্লান্ট প্রকল্প উন্নয়ন উন্মোচনের উদ্বোধন এর মাধ্যমে। প্রকল্প তিনটি উদ্বোধন করলেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও শেখ হাসিনা।

১ নভেম্বর বুধবার বেলা সাড়ে এগারোটায় ভার্চুয়ালি এই প্রকল্পগুলো উদ্বোধন করেন। গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং একই সময়ে নয়া দিল্লি থেকে যুক্ত হন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

উল্লেখ যোগ্য প্রকল্প তিনটির মধ্যে রয়েছে খুলনা মোংলা বন্দর রেল লাইন, আখাউড়া আগরতলা আন্তঃ সীমান্ত রেল সংযোগ, এবং মৈত্রী সুপার থার্মাল পাওয়ার প্লান্টের দ্বিতীয় ইউনিট।

এলক্ষ্যে ভারত সরকার বলেছেন এই প্রকল্প গুলো ভারতের সহায়তার মাধ্যমে বাস্তবায়িত হয়েছে। যা এই অঞ্চলের সংযোগ এবং জ্বালানি নিরাপত্তার জোরদার করবে।
আখাউড়া আগরতলা আন্ত সীমান্ত রেল সংযোগ প্রকল্পটি ভারত সরকারের ৩৯২ কোটি ৫২ লাখ টাকার অনুদান সহায়তা আওতায় আবাস্তবায়িত হয়েছে।
রেল পথটি চালুর ফলে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্য বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে।

জানা গেছে উদ্বোধনের পর প্রথম দিকে পন্যবাহী ট্রেন এবং পরবর্তী সময় যাত্রীবাহী ট্রেন চালানো হবে এই রুটে।

তাছাড়া খুলনা মোংলা বন্দর রেললাইন প্রকল্পটি ভারত সরকারের সারের লাইন অফ ক্রেডিটের আওতায় ৩৮৮ দশমিক ৯২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দ্বারা বাস্তবায়িত হয়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বন্দর মোংলা ব্রডগেজ রেল নেটওয়ার্কের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে।

এবং মৈত্রী সুপার থার্মাল বিদ্যুৎ প্রকল্পে ১.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ভারতীয় ঋণ সহায়তার আওতায় বাংলাদেশের খুলনা বিভাগের রামপালে অবস্থিত একটি ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াট এবং ( ২× ৬৬০) সুপার থার্মাল পাওয়ার প্লান্ট (এমএসটিপিপি) প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...

আপনি কি লেখা পাঠাতে চান?

সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা শীঘ্রই 09602111973 অথবা 01819-242905 নাম্বারে যোগাযোগ করুন...

X