1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দ্বিতীয় ধাপে বরগুনা সদর ও বেতাগী উপজেলায় আগামীকাল ভোট গ্রহন কালিয়াকৈরের অভিভাবক হবেন কে?  জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয় এমন কোন কাজ থেকে বিরত থাকার আহ্বান  আমতলীতে তারুণ্যের আলো কেন্দ্রীয় যুব ফোরামের বার্ষিক সমাবেশ-২০২৪ পালন  হোমনা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ হাঁক-ডাক নেই, লেইস ফিতা লেইস রাত পোহালেই কালকিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন, কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রংপুরে বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস পালিত লামায় রাত পোহালে ভোট প্রশাসন প্রস্তুত, শেষ হাসিটা কার হবে, অপেক্ষার প্রহর গুনছে জনতা চিলমারীতে বিধি বহির্ভূতভাবে শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন স্থগিতের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন




নীলফামারীতে পনেরো লাখ টাকা হারিয়ে ৯৯৯ এ ফোন, উদ্ধার করলো পুলিশ

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: রবিবার, ১১ জুন, ২০২৩
  • ৬৭ বার পঠিত
সরকার সালাহউদ্দীন সুমন: জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে নীলফামারীতে এক ব্যবসায়ীর হারিয়ে যাওয়া পনেরো লাখ টাকার ব্যাগ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
শনিবার (১০ জুন) সন্ধায় সদর থানায় ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলামের হাতে উদ্ধারকৃত টাকা তুলে দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তফা মঞ্জুর পিপিএম। এসময় সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ শাহরিয়ার, পরিদর্শক তদন্ত পলাশ চন্দ্র মন্ডল উপস্থিত ছিলেন।
ব্যবসায়ী মোঃ রফিকুল ইসলাম বগুড়া ধুনট চৌকিবাড়ি এলাকার মৃত আমীর হামজার ছেলে। তিনি নীলফামারীতে ভুট্টা কিনতে এসেছিলেন।
পুলিশ জানায়, ‘সকাল ১১ টার দিকে এক ব্যবসায়ী জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন করে জানায় সদর উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের কানাইকাটা এলাকায় চায়ের দোকানে ভুলে ব্যাগ রেখে আসেন। পরে ব্যাগটি আর খুজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। হারিয়ে যাওয়া ব্যাগে পনেরো লাখ টাকাসহ অফিসিয়াল গুরুত্বপূর্ণ কিছু কাগজপত্র ছিল। এই সংবাদের ভিত্তিতে নীলফামারী সদর থানার মোবাইল টিমের দায়িত্ব থাকা এসআই রনি  ও কয়েকজন পুলিশ সদস্য সঙ্গে নিয়ে তাৎক্ষণিক উক্ত এলাকার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি শুরু করে। পরে বিকেল ৩ টার দিকে  চায়ের দোকানদার জবেদ আলীর  বাড়ি থেকে টাকার ব্যাগটি সম্পূর্ণ অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে সবার উপস্থিতিতে টাকার প্রকৃত মালিককে হস্তান্তর করা হয়েছে।’
ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম বলেন,এই টাকাটা আমাদের ভুট্টা ব্যবসার টাকা। হারানোর পর টাকাটা হারানোর পর ৯৯৯-এ ফোন করি। পুলিশের তাৎক্ষণিক পদক্ষেপে হারানো টাকাটা ফিরে পেয়েছি। এজন্য নীলফামারী সদর থানার ওসি ও পুলিশ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই।
সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খানা মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, “৯৯৯ এ ফোন পেয়ে তৎক্ষনাৎ আমরা একটি টিম পাঠাই৷ ৪ ঘন্টা বিভিন্ন যায়গায় তল্লাশি চালিয়ে টাকা টা উদ্ধার করি। পরে সন্ধায় সকলের সামনে প্রকৃত মালিক ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলামের হাতে সম্পুর্ন টাকা তুলে দেয়া হয়।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...