1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১০:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দ্বিতীয় ধাপে বরগুনা সদর ও বেতাগী উপজেলায় আগামীকাল ভোট গ্রহন কালিয়াকৈরের অভিভাবক হবেন কে?  জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয় এমন কোন কাজ থেকে বিরত থাকার আহ্বান  আমতলীতে তারুণ্যের আলো কেন্দ্রীয় যুব ফোরামের বার্ষিক সমাবেশ-২০২৪ পালন  হোমনা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ হাঁক-ডাক নেই, লেইস ফিতা লেইস রাত পোহালেই কালকিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন, কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রংপুরে বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস পালিত লামায় রাত পোহালে ভোট প্রশাসন প্রস্তুত, শেষ হাসিটা কার হবে, অপেক্ষার প্রহর গুনছে জনতা চিলমারীতে বিধি বহির্ভূতভাবে শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন স্থগিতের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন




নানা আয়োজনে ময়মনসিংহে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী দিবস পালিত

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: সোমবার, ২৯ মে, ২০২৩
  • ১৩৯ বার পঠিত

মাসুদ রানা, ময়মনসিংহ সদর প্রতিনিধি: “Peace begins with me”- এই শ্লোগানে ময়মনসিংহ রেঞ্জ পুলিশের আয়োজনে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী দিবস পালিত হয়েছে। সোমবার সকালে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দিবসটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। পরে দিবসটি উপলক্ষ্যে এক বর্ণাঢ্য র‍্যালী, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। রেঞ্জ ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রাণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমদ।

বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ ইকরামুল হক টিটু, বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শফিকুর রেজা বিশ্বাস, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ হাফিজুর রহমান, জেলা প্রশাসক মোঃ মোস্তাফিজার রহমান, পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী শরীফ বলেন, বাংলাদেশের মানুষ ঐতিহ্যগত ভাবেই শান্তি প্রিয়। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশ বিশ্ব শান্তি রক্ষায় আন্তর্জাতিক শান্তি মিশনে কাজ শুরু করে। বাংলাদেশের শান্তিরক্ষা বাহিনী জীবন উৎসর্গ করে শুধু এদেশের মুখই উজ্জল করেনি, সফল করেছে সকল শান্তি প্রিয় রাষ্ট্রের সম্মিলিত প্রচেষ্টাকে। সভাপতির বক্তব্যে ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য বলেন, জাতিসংঘ সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশের কাজে স্বীকৃতি দিয়েছে। বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশ তাদের পেশাদারিত্ব, নিরপেক্ষতা, ধর্ম-বর্ণ ও নারী-পুরুষের প্রতি সংবেদনশীল ও শ্রদ্ধাশীল থেকে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সফল ও সুনামের সহিত কাজ করছে, যা শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশকে রোল মডেল হিসেবে উপস্থাপন করেছে। সারাদেশের ন‍্যায় ময়মনসিংহ রেঞ্জ পুলিশও যথাযথ মর্যাদার সাথে এই দিনটি উদযাপন করে আসছে।

এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (প্রশাসন ও অর্থ) মোঃ এনামুল কবির, রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (ক্রাইম) আবিদা সুলতানা, র‍্যাব-১৪ এর অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার, নেত্রকোণা, পুলিশ সুপার জামালপুর, পুলিশ সুপার শেরপুর, কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ কামাল আকন্দ, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সৈয়দ মাহাবুবুর রহমানসহ রেঞ্জ পুলিশ, জেলা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ১৯৮৯ সাল থেকে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে সাফল্যের সাথে অংশ গ্রহণ করে চলেছে। এ পর্যন্ত বাংলাদেশের ২১,২৮৪ জন পুলিশ সদস্য শান্তিরক্ষী হিসেবে কাজ করেছেন। বর্তমানে ৫১২ জন বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যসহ ৭২৬৯ জন বাংলাদেশী শান্তিরক্ষী বিভিন্ন মিশনে কর্মরত আছেন। বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় গত ৩৪ বছরে বাংলাদেশের ১৬৬ জন শান্তিরক্ষী প্রাণ বিসর্জন দিয়েছেন। বাংলাদেশ ২০১০ সাল থেকে নারী পুলিশ কন্টিনজেন্ট প্রেরণ করছে। এ যাবৎকাল নারী পুলিশের ১৭৬৬ জন সদস্য শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ গ্রহণ করেছে। বর্তমানে সারা বিশ্বে ১৫৭ জন নারী পুলিশ সদস্য শান্তিরক্ষা মিশনে কাজ করছে।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...