1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
‘সমাজের জন্য এক মিনিট সময় ব্যয়’ প্রজেক্টের আওতায় গ্রুপ কাউন্সেলিং মাদারীপুরে জেলা ছাত্রদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত কুষ্টিয়ায় পরকীয়ার জেরে যবুককে পিটিয়ে হত্যা, আটক ৩ সাঁথিয়ায় ছাত্রলীগ নেতার কাঁটাতারের বেড়ায় অবরুদ্ধ তিনটি পরিবার, পুলিশ হস্তক্ষেপে অপসারণ কিশোরীর মৃত দেহ উদ্ধার মহেশপুর এ শিক্ষক, শিক্ষার্থী, পাঠক মতবিনিময় সভা ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত যশোরের মণিরামপুরে বিপুল পরিমান জাল ব্যান্ডরোলসহ তিনজন গ্রেপ্তার মহিমাগঞ্জ বসত বাড়ির জায়গা নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ্ব মারপিটে যখম ও আহত ২ আশাশুনির বিছট স্কুলের সামনে ফাটল সোনাগাজীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ডের সাথে  উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী লিপটন’র মতবিনিময় অনুষ্টিত  




টাঙ্গাইলে ধর্ষন মামলায় আওয়ামী লীগ নেতার জামিন না মঞ্জুর, কারাগারে প্রেরন

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: সোমবার, ১৫ মে, ২০২৩
  • ১০০ বার পঠিত

সুলতান কবির টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলে ধর্ষন মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা ও টাঙ্গাইল বাস-কোচ-মিনিবাস মালিক সমিতির মহাসচিব গোলাম কিবরিয়া বড় মনির জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (১৫ মে) দুপুরে বিচারক মোঃ মাহমুদুল মহসিন জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। তবে মামলার অপর আসামী গোলাম কিবরিয়া বড় মনিরের স্ত্রী নিগার আফতাব আদালতে আত্মসমর্পন করেননি।

এর আগে গোলাম কিবরিয়া বড় মনির টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পন করেন।

গত ৫ এপ্রিল রাতে এক কিশোরী বাদী হয়ে টাঙ্গাইল-০২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) আসনের সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির এর বড় ভাই গোলাম কিবরিয়া বড় মনির বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। মামলায় তার স্ত্রী নিগার আফতাবকেও আসামী করা হয়।

টাঙ্গাইল আদালতের সরকারী কৌশলী (পিপি) এডভোকেট এস আকবর খান জানান, গত ১৮ এপ্রিল উচ্চ আদালত থেকে চার সপ্তাহের আগাম জামিন নেন তিনি। এরপর রাষ্ট্রপক্ষ জামিন স্থগিত চেয়ে চেম্বার জজ আদালতে আবেদন করে। এর প্রেক্ষিতে ৩০ এপ্রিল বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম জাামিন স্থগিত করে দুই পরবর্তী দুই সপ্তাহের মধ্যে নিন্ম আদালতে আত্মসমর্পনের নির্দেশ দেন।

এ সময় মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত বছরের (১৭ ডিসেম্বর) গোলাম কিবরিয়া বড় মনির টাঙ্গাইল পৌর শহরের আদালত পাড়ায় নিজের বাড়ির পাশের একটি ভবনে ওই কিশোরীকে ডেকে নেন। সেখানে তার মুঠোফোন ছিনিয়ে নিয়ে গোলাম কিবরিয়া তাকে একটি কক্ষে আটকে রাখেন।

পরে তাকে ধর্ষণ করে তার আপত্তিকর ছবি তুলে রাখা হয়। বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য গোলাম কিবরিয়া বড় মনির তাকে ভয়ভীতি দেখান।

 



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...