1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
‘সমাজের জন্য এক মিনিট সময় ব্যয়’ প্রজেক্টের আওতায় গ্রুপ কাউন্সেলিং মাদারীপুরে জেলা ছাত্রদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত কুষ্টিয়ায় পরকীয়ার জেরে যবুককে পিটিয়ে হত্যা, আটক ৩ সাঁথিয়ায় ছাত্রলীগ নেতার কাঁটাতারের বেড়ায় অবরুদ্ধ তিনটি পরিবার, পুলিশ হস্তক্ষেপে অপসারণ কিশোরীর মৃত দেহ উদ্ধার মহেশপুর এ শিক্ষক, শিক্ষার্থী, পাঠক মতবিনিময় সভা ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত যশোরের মণিরামপুরে বিপুল পরিমান জাল ব্যান্ডরোলসহ তিনজন গ্রেপ্তার মহিমাগঞ্জ বসত বাড়ির জায়গা নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ্ব মারপিটে যখম ও আহত ২ আশাশুনির বিছট স্কুলের সামনে ফাটল সোনাগাজীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ডের সাথে  উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী লিপটন’র মতবিনিময় অনুষ্টিত  




মদনে দীর্ঘ নয় মাস পর ফের উত্তপ্ত চালাকান্দা গ্রাম, সংঘর্ষে আহত ৪ জন

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: মঙ্গলবার, ২ মে, ২০২৩
  • ১৬৭ বার পঠিত

আলী আজগর পনির: নেত্রকোনার মদন উপজেলার ফতেপুর দেওসহিলা চালাাকান্দ শিক্ষানবিশ উকিল হাফিজুল হক চৌধুরী খুন হওয়ার দীর্ঘ নয় মাস পর ফের উত্তপ্ত বিরাজ করছে দুই গ্রুপ ফুল মিয়া চৌধুরী ও রফিক মিয়ার লোকজনের মাঝে।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ নয় মাস পর রফিকুল ইসলাম মিয়ার লোকজন এলাকাবাসীর সহায়তা বাড়িতে বসবাস করার জন্য আসে।

বাড়িতে আসার কারণে ২মে, রোজ মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে ফুল মিয়া চৌধুরীর লোকজন রফিকুল ইসলামের লোকজনকে বাড়িতে থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার জন্য, রফিকুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে দেশীয় অস্ত্র লাঠি সোডা নিয়ে মারধর শুরু করে ফুল মেয়া চৌধুরীর লোকজন।

এতে করে দুই পক্ষের চারজন আহত হয়েছেন। রফিকুল ইসলামের পক্ষে আহত হয়েছেন ৩ জন।

আব্দুল খালেক এর স্ত্রী জরিনা আক্তার (৬০), আব্দুল মালেকের স্ত্রী ললিতা আক্তার (৫৫) আবুল হোসেনের স্ত্রী নুরি আক্তার (৩০)।
ফুলিয়া চৌধুরীর পক্ষে আহত হয়েছে কাঞ্চন চৌধুরী ছেলে ইমরান চৌধুরী(৩০)।

আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ বিষয়ে হারেছ মিয়া বলেন, দীর্ঘ নয় মাস পর রোহিঙ্গাদের মতো করে বাড়িতে আসলাম, আমাদের ঘর দুয়ার সব ভাইঙ্গা নিয়ে গেছে ফুল মিয়া চৌধুরীর লোকজনে মিলে।

বাড়িতে কোন কিছু নাই। পলিথিন ত্রিপাল টানিয়ে কোনরকম দুইদিন ধরে বসবাস করতাছি বাড়িতে। বাঁশ কাঠ আনছি একটা চেলা ঘর করে কোন রকম থাকার জন্য।

আজ সকালে ফুলমিয়া চৌধুরী লোকজন মিলে বাড়িতে এসে মাইরধর শুরু করে দিয়েছে । বাড়ি থেকে যাওয়াগার জন্য। তারা এও বলতাছে যেকোনো সময় দুই তিনটা খুন করতে আমরা প্রস্তুত আছি। এ অবস্থা প্রশাসন ও এলাকাবাসীর সহায়তা ছাড়া আমাদের এই গ্রামে বাঁচার আর কোন উপায় নাই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে,প্রতিপক্ষ ফুলমিয়া চৌধুরী জানায়, সকালের ধান কাটার জন্য হাওড়ে যাইতেছিল আমার ভাতিজা ইমরান(৩০) রফিকুল ইসলাম লোকজন আমার ভাতিজাকে দেখে গালাগালি শুরু করে এই কারণেই এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে আজ।

এ বিষয়ে মদন থানা ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...