1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দ্বিতীয় ধাপে বরগুনা সদর ও বেতাগী উপজেলায় আগামীকাল ভোট গ্রহন কালিয়াকৈরের অভিভাবক হবেন কে?  জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয় এমন কোন কাজ থেকে বিরত থাকার আহ্বান  আমতলীতে তারুণ্যের আলো কেন্দ্রীয় যুব ফোরামের বার্ষিক সমাবেশ-২০২৪ পালন  হোমনা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ হাঁক-ডাক নেই, লেইস ফিতা লেইস রাত পোহালেই কালকিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন, কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রংপুরে বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস পালিত লামায় রাত পোহালে ভোট প্রশাসন প্রস্তুত, শেষ হাসিটা কার হবে, অপেক্ষার প্রহর গুনছে জনতা চিলমারীতে বিধি বহির্ভূতভাবে শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন স্থগিতের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন




শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত লড়াই করে যাব : জাহাঙ্গীর আলম

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: রবিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১৩৭ বার পঠিত

মৃণাল চৌধুরী সৈকত সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার: গাজীপুর সিটি করপোরেশনের স্বতন্ত্র প্রার্থী (আওয়ামী বিদ্রোহী) সাবেক মেয়র এ্যাড. জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন, আমি মনে করি এখানে নির্বাচন কমিশনারের যে নিরপেক্ষতা ছিল, তিনি তা থেকে তারা সরে গেছেন। কোনো অদৃশ্য চাপে সরে গেছেন, এটা আমি জানি। আমি ন্যায় বিচার চাই। আপিল করব, প্রয়োজনে সুপ্রিম কোর্ট, হাইকোর্টে যাব। আমি সবশেষ লড়াই করে যাব।

রোববার (৩০ এপ্রিল) বেলা সোয়া ১০টার দিকে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা হওয়ার পর তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় সাংবাদিকদের উদ্দ্যেশে স্বতন্ত্রী মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম এসব কথা বলেন।

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, যেহেতু ব্যাংক টাকা পাবে, ব্যাংকে টাকা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরোর (সিআইবি) নাম দিয়ে আমার নমিনেশন বাতিল করেছে। আমি এর ন্যায় বিচার চাই। গাজীপুরের মানুষকে রক্ষা করতে চাই। দেশবাসীর কাছে জানতে চাই, একজন প্রার্থী হিসেবে, একজন মানুষ হিসেবে, আমি ন্যায় বিচার পেতে পারি কি না? সে জন্যে আমি মহানগর বাসী সকলের সহযোগিতা চাই। আমি চাই নির্বাচন কমিশন স্বচ্ছতার মধ্যে যেন কাজটা করেন। আমি অবশ্যই আপিলে যাব। আমি এটার সবশেষ দেখব।

তিনি আরো বলেন, সত্যের জয়ের জন্য আমি লড়াই করছি। আমি সবশেষ পর্যন্ত দেখে যাব। আমি রাষ্ট্র-সরকার-বিচার বিভাগ এবং নির্বাচন কমিশনের কাছে নিরপেক্ষতা আশা করছি, আমি দল, সরকার এবং রাষ্ট্রযন্ত্রসহ দেশবাসী এবং গাজীপুরবাসী সবার সহযোগিতা চাই। আমাদের সিটি করপোরেশনের সব নাগরিকের মৌলিক অধিকার টুকু বাঁচানোর জন্য, এ শহর রক্ষা করার জন্য, আমি চেষ্টা করছি।

এদিকে নির্বাচন কমিশন জাহাঙ্গীর আলমের মনোনয়ন বাতিল করলেও নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে তার মা জায়েদা খাতুনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছেন।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাইয়ের দিন ছিল ৩০ এপ্রিল রোববার। বেলা সোয়া ১০ টায় গাজীপুর সিটি করপোরেশনের রিটানিং কর্মকর্তা মো. ফরিদুল ইসলাম তার কার্যালয় বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামে মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই শেষে সাবেক মেয়র স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম, মেয়র পদে অপর ২ স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল হোসেন ও অলিউর রহমানের মনোনয়ন বাতিল ঘোষণা করেন। এছাড়াও দুই কাউন্সিলর প্রাথীর মনোনয়নপত্রও বাতিল ঘোষনা করা হয়।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের রিটানিং কর্মকর্তা মো. ফরিদুল ইসলাম বলেন, ঋণ খেলাপি হওয়ায় জাহাঙ্গীর আলমের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

এ সময় জাহাঙ্গীর আলম সাংবাদিকদের জানান, যে ঋণ খেলাপির অভিযোগে তার মনোনয়ন পত্রটি বাতিল হয়েছে ওই ব্যাংকে তিনি ঋণ পরিশোধ করে দিয়েছেন। তিনি রহিমের বিপরীতে জামিনদার ছিলেন। এ সময় রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে ব্যাংকের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। ব্যাংক কর্মকর্তারা ঋণ পরিশোধের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তবে রিটার্নিং কর্মকর্তা বলছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সিআইবি রিপোর্টে তিনি ঋণ খেলাপি। সে জন্য তার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। অন্যদিকে নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে তার মা জায়েদা খাতুনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...