1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  5. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  6. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :




যশোরে তিন দিনব্যাপী আঞ্চলিক ইজতেমা শুরু

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ২৭ বার পঠিত

জেমস আব্দুর রহিম রানা: যশোরে তিন দিনব্যাপী আঞ্চলিক ইজতেমা শুরু হয়েছে। শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) ফজর নামাজের পর আম বয়ানের মধ্যে দিয়ে ইজতেমা শুরু হয়। জেলা তাবলীগ জামাত মাওলানা সাদ গ্রুপের আয়োজনে উপশহরের মার্কাস মসজিদ মাঠে এ ইজতেমা শুরু হয়। প্রথম দিনে সেখানে প্রায় অর্ধ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লির সমাগম ঘটেছে। শুক্রবার ফজরের নামাজের পর আমবয়নের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ইজতেমার কার্যক্রম শুরু হয়। তারপর জুম্মার নামাজের সময় মাঠটি কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। যশোরসহ পাশ্ববর্তী জেলা নড়াইল, ঝিনাইদহ ও সাতক্ষীরার মানুষ এই ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন। তিন দিনে প্রায় দুই লাখ মানুষের সমাগম হবে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

প্রথমদিনে ইসলামের মূল বিষয়গুলো বয়নের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়। ইসলাম ধর্ম জীবনকে সুন্দর ও পরিমার্জিত করে তোলে সেই বিষয়ে বিশদ ব্যাখ্যা করা হয়। ইহজীবন ও পরজীবনের জন্য ইসলাম একমাত্র মুক্তির পথেয় সেই সর্ম্পকে বয়ান করা হয়।

জেলা তাবলীগ ইজতেমার আমির এস এম ইয়ামানুর রহমান জানান, ইজতেমার জন্যে প্রায় ৭ লাখ বর্গফুট জায়গা প্রস্তুত করা হয়েছে। গোটা মাঠ ঢেকে দেওয়া হয়েছে ত্রিপল ও চট দিয়ে । খুলনা বিভাগের ১০ জেলা ছাড়াও ফরিদপুর, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, শরিয়তপুর, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর ও পাবনা থেকে মুরুব্বিরা ইজতেমায় আসবেন।

ইয়ামানুর রহমান জানান, ইজতেমায় আরব, ইন্দোনেশিয়া, ভারত থেকে জামায়াতে আসবেন। আশা করা হচ্ছে প্রায় দুই লাখ মানুষের সমাগম ঘটবে ইজতেমায়। আগামী ১৭ ডিসেম্বর রবিবার সকাল ১১টায় আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে ইজতেমা শেষ হবে।

ইজতেমা মাঠের জিম্মাদার মাওলানা শফি বলেন, ইজতেমা ময়দানের সব কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। বিশাল জায়গাজুড়ে অবস্থিত মাঠটি ত্রিপল দিয়ে ঘেরা হয়েছে। হাজারো মুসল্লির পয়নিষ্কাশনের জন্য ২৫০টি টয়লেটের ব্যবস্থা রয়েছে। এ ছাড়া দুই শতাধিক অজু ও গোসলখানা নির্মাণ করা হয়েছে। অর্ধশতাধিক মাইক টাঙানো হয়েছে। ইজতেমা মাঠে মুসল্লিদের প্রবেশের জন্য চারটি গেট নির্মাণ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ইজতেমায় ৫টি বিদেশি জামাত অংশ নিচ্ছে। মালয়েশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভারত ও মোর্তানিয়া এই ৫টি দেশ থেকে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা অংশ নিচ্ছেন। রোববার সকালে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ইজতেমা শেষ হবে।

যশোর কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, যশোরের পুলিশ সুপার মহোদয় নিরাপত্তার বিষয়টি তত্ত্বাবধান করছেন।

 



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...