1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  5. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  6. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখে : নসরুল হামিদ মানুষের হাতে প্রয়োজনের তুলনায় বেশি টাকা রয়েছে: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী ৫ বছরে সরকারি চাকরি পেয়েছেন কতজন, জানালেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী নির্দেশনা না মানলে কঠোর শাস্তির হুঁশিয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ‘বিএনপির আটক কর্মীদের মুক্তির সঙ্গে নির্বাচনের সম্পর্ক নেই’ বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম বৃদ্ধি সরকারের একটি অমানবিক খেলা: রিজভী একা একা লাগে মাহিয়া মাহির রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখবে সরকার: কাদের চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য টগরকে নাগরিক সংবর্ধনা ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ৩৩টি গাঁজাগাছ সহ নারী গ্রেপ্তার




বাঘায় পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উদযাপন

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৯ বার পঠিত

শানাউল কবির (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃনিরাপদ মাতৃত্ব, পরিকল্পিত পরিবার স্মার্ট বাংলাদেশ হোক আমাদের অঙ্গীকার ” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রাজশাহীর বাঘায় পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১১ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার বাউসা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের উদ্যোগে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জানা যায়, পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ শুরু হয় গত ৯ ডিসেম্বর শেষ হবে ১৪ ডিসেম্বর। দেওয়া হবে পরিবার পরিকল্পনা সেবা, জরুরী প্রসূতী সেবা, প্রসব পরবর্তী পরিবার পরিকল্পনা সেবা, গর্ভবতী সেবা, নবজাতক ও শিশু সেবা, প্রজনন স্বাস্থ্য সেবা এবং কৈশরকালীন স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেবা।

উক্ত অনুষ্ঠানে নরমাল ডেলিভারি ও নিরাপদ মাতৃত্ব এবং কেশরকালীন পুষ্টি ও সেবা বিষয়ে বিষদ আলোচনা করেন বাউসা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মশিউর রহমান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পরিবার কল্যাণ পরিদর্শীকা ফেরদৌসী খাতুন, পরিবার কল্যাণ সহকারী শান্তনা রাণী। এছাড়াও গর্ভবতী নারী, শিশু ও কিশোরীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, আলোচনা সভা শেষে ৫ বছর বা তার চেয়ে কম বয়সী শিশুদের ভিটামিন -এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...