1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  5. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  6. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৩৭ অপরাহ্ন




নৌকায় ভোট চাইলেন জাহিদ মালেক

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: শনিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৪৯ বার পঠিত

নাগরিক ভাবনা ডেস্ক: মানিকগঞ্জ -৩ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, আমরা আপনাদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে দীর্ঘ সময় সরকারে ছিলাম ও আপনাদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে এমপি হয়েছি। আপনারা আস্থা রেখে ভোট দিয়েছেন বারবার। তার ধারাবাহিকতায় আগামী সাত তারিখে অনুষ্ঠিতব্য দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে সংসদীয় এলাকায় (১৭০) উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার সুযোগ দিন।

শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে সাটুরিয়া উপজেলার ধানকোড়া ইউনিয়নে গোলড়া কবরস্থান, মাদ্রাসা ও ঈদগাহ মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় শেষে ও মুসল্লীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আর ও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আস্থা রেখে একটি বৃহত্তর মন্ত্রনালয়ে দুই-বার দায়িত্ব দিয়েছেন,’একবার প্রতিমন্ত্রী হিসেবে ও পরে মন্ত্রী হিসেবে কাজ করেছি। আপনারা জানেন স্বাধীনতার পরে মানিকগঞ্জ থেকে কোনো ব্যক্তি পূর্ন মন্ত্রী হয় নাই। আপনাদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে পূর্ন মন্ত্রী হয়েছি। আমি মন্ত্রী হওয়া মানে আপনারা সকলেই মন্ত্রী হয়েছেন এবং সকলেই সেই সম্মানে সম্মানীত হয়েছিলেন। যে দায়িত্ব টুকু দিয়ে ছিলেন তা পালন করার চেষ্টা করেছি।’

মন্ত্রী আরও বলেন, সাটুরিয়ায় অনেকে আগে নির্বাচিত হয়েছেন কিন্ত কাজ করে নাই। আমরা ১০ বছরে যা কাজ করেছি অন্যরা ৩০ বছরেও করতে পারে নাই। বাহিরের লোক সাটুরিয়ায় দুঃখ কষ্ট বুঝবে না। এই মসজিদ আগে অনেক ছোট ছিলো কিন্ত আজকে কত সুন্দর হয়েছে, কত সুন্দর মাদ্রাসা হয়েছে, এটা কিন্ত আগে ছিলো না । এই মাদ্রাসার শিক্ষক – বৃন্দের আগে সামান্য বেতন পেতেন। অনেক কষ্ট হতো কিন্ত এখন আর সেই কষ্ট হয় না। কারন সরকার এই মাদ্রাসাকে এম,পিও ভুক্ত করেছে। মানিকগঞ্জে মাত্র তিন-চারটা মাদ্রাসা এম,পিওভুক্ত হয়েছে যার মধ্যে এ মাদ্রাসা অন্তর্ভুক্ত।মানিকগঞ্জে অনেক সরকারি হাসপাতাল, শিশু হাসপাতাল, ডায়াবেটিস হাসপাতালে চিকিৎসা হচ্ছে এ সব আল্লাহ তা আলার নেয়ামত। আমরা উসিলা হিসেবে কাজ করেছি আপনাদের জন্য শুধু। আমরা কখনো বলি না আমরা করে দিয়েছি। এটা আমাদের দায়িত্ব। কাজ করে সেই দ্বায়িত্ব কেবল পালন করেছি ।

এ সময় সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ ইসরাফিল হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফসার উদ্দিন সরকার, ধানকোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়চরম্যান মো. আব্দুর রউফ,নধানকোড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আব্দুল হক,ধানকোড়া ইউনিয়নের সাবেক, চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক,নগোলড়া ৬নং ইউপি সদস্য মোনায়েম, প্রমুখ।

এ সময় আওয়ামী লীগ ও অংগ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

 

n/v

 

 



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...