1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  5. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  6. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:১২ অপরাহ্ন




নিরাপত্তাকর্মী থেকে বিসিএস ক্যাডার কুড়িগ্রামের জিয়াউর রহমান

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: সোমবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১৩৩ বার পঠিত

এম জি রাব্বুল ইসলাম পাপ্পু, সদর (কুড়িগ্রাম): কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলাধীন ধরণীবাড়ি ইউনিয়নের বাকারায় মধুপুর (দালালীপাড়া) গ্রামের  মোঃ ছকিয়ত আলী এবং জুলেখা বেগম দম্পতির সন্তান জনাব মোঃ জিয়াউর রহমান।  তিন ভাই-বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। দিনমজুর বাবা প্রায়ই অসুস্থ থাকতেন এবং মা অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করতেন।

৪১তম বিসিএস (সাধারণ শিক্ষা) ক্যাডারে সুপারিশ প্রাপ্ত  মোঃ জিয়াউর রহমান স্থানীয় নতুন অনন্তপুর দাখিল মাদ্রাসা থেকে ২০১২ সালে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। অতঃপর ধরণীবাড়ি লতিফ রাজিয়া ফাজিল মাদ্রাসা থেকে ২০১৪ সালে ৪.৬৭ পেয়ে তিনি আলিম পাশ করেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হতে তিনি পরবর্তীতে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ থেকে অনার্স এবং মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। উল্লেখ্য যে, তিনি অনার্সে সিজিপিএ-৩.৪১ লাভ করেন। এপিয়ার্ড সার্টিফিকেট দিয়ে তিনি বিসিএস পরীক্ষার দরখাস্ত করেন। বিদ্যুতের আলো, হারিকেন কিংবা কুপি কোনটাই তার ভাগ্যে জোটেনি। কেরোসিন তেল না থাকায় প্রায়শই তিনি মোমবাতি জ্বালিয়ে পড়াশোনা করেছেন। খাট, চৌকি, টেবিল, চেয়ার – কোনটাই ছিল না তার। বাঁশের টং বানিয়ে সেখানেই পড়াশোনা করেছেন। পাশের বাড়ি থেকে চেয়ে এক প্লেট ভাত এনে দিয়েছেন দুখিনী মা। সেই ভাত আলু ভর্তা দিয়ে খেয়ে পরীক্ষা দিতে গিয়েছেন জিয়াউর। শোয়ার জন্য ভালো ঘর কিংবা বিছানা ছিলনা তার। গোয়াল ঘরের একপাশে গরু-ছাগল আরেক পাশে ছিলেন তিনি।

নিজ এলাকায়, মুন্সিগঞ্জে, ঢাকা শহরে, রাজশাহীতে বিভিন্ন সময়ে ফাস্টফুডের দোকানে, ম্যাচ ফ্যাক্টরিতে, ঔষধ কোম্পানীতে কিংবা অন্যের বাসায় দিনমজুর, রাজমিস্ত্রি, টাইলস মিস্ত্রি বা নিরাপত্তা কর্মী হিসেবে কাজ করেছেন দিনের বেলায়। আর রাত্রিতে করেছেন পড়ালেখা। অর্থনৈতিক সংকট, অভাব কিংবা দারিদ্র্য তার পড়ালেখার পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। দৃঢ় প্রত্যয়, আত্মবিশ্বাস, অসীম সাহস এবং অদম্য স্পৃহা তাকে নিয়ে এসেছে বহুদূর। জীবন যুদ্ধে জয়ী হওয়া জিয়াউর রহমান এবং তার পিতা-মাতার চোখে এখন শুধু আনন্দ অশ্রু। এ বছরের (২০২৩) জানুয়ারি মাসে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে তার চাকুরী জীবন শুরু হয়। শত শত যুবকের প্রেরণা এই জিয়াউর রহমানকে গত ২৬/১০/২০২৩ তারিখে সংবর্ধনা প্রদান করেন রক্তিম ফাউন্ডেশন, উলিপুর, কুড়িগ্রাম। উপজেলা পরিষদ হলরুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত)  কাজী মাহমুদুর রহমান, উলিপুর সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ  মোঃ আবু যোবায়ের আল মুকুল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা  ডা. মেশকাতুল আবেদ, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা  মো: তারিফুর রহমান  , জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আবৃত্তি শিল্পী ও প্রশিক্ষক  মোঃ আরিফ হাসান, উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার  নূর-ই-আলম সিদ্দিকী, অক্সফোর্ড মডেল পাবলিক স্কুলের নির্বাহী পরিচালক  মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...