1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন




ডলার নয়, আমদানিতে চীনা মুদ্রা ব্যবহার করবে আর্জেন্টিনা

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৮৮ বার পঠিত

চলমান ডলার সংকটের মধ্যে চীন থেকে পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে মার্কিন ডলারের পরিবর্তে চীনা মুদ্রা ইউয়ান ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ আর্জেন্টিনা।

বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) আর্জেন্টিনা সরকারের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কয়েক মাস ধরেই ডলার সংকটের মধ্যে রয়েছে আর্জেন্টিনা। বিভিন্নভাবে উদ্যোগ নিয়ে ডলারের ওপর নির্ভরতা কমানোর চেষ্টা করছে দেশটি। সেই ধারাবাহিকতায় এবার চীনের সঙ্গে লেনদেনের ক্ষেত্রে ডলারের পরিবর্তে ইউয়ান ব্যবহারের ঘোষণা দিয়েছে আর্জেন্টিনা।

এদিকে বুধবার (২৬ এপ্রিল) আর্জেন্টিনা সরকার এক ঘোষণায় জানিয়েছে, চীন থেকে আমদানির জন্য এখন থেকে ডলারের পরিবর্তে ইউয়ানে অর্থ প্রদান করা হবে। এতে দেশের ক্রমহ্রাসমান ডলারের রিজার্ভ পরিস্থিতি কিছুটা সহনীয় পর্যায়ে আসবে।

আর্জেন্টিনা সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, এপ্রিল মাসে তারা ১০০ কোটি মার্কিন ডলার সমমূল্যের চীনা পণ্যের আমদানিমূল্য ডলারের পরিবর্তে ইউয়ানে পরিশোধের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। তারপর থেকে প্রতি মাসে প্রায় ৭৯ কোটি মার্কিন ডলার সমমূল্যের পণ্য আমদানিমূল্য ইউয়ানে পরিশোধ করা হবে।

আর্জেন্টিনার অর্থমন্ত্রী সার্জিও মাসা বলেছেন, ডলারের বহিঃপ্রবাহ সহজ করার লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সম্প্রতি দেশটিতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত জু জিয়াওলির সঙ্গে এক বৈঠক শেষে এ কথা বলেন তিনি। বৈঠকে দেশটির বিভিন্ন খাতের কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

মাসা আরও বলেন, নতুন সিদ্ধান্তের ফলে আর্জেন্টিনার আমদানির পরিমাণ আরও বাড়বে। আর ইউয়ানের মাধ্যমে লেনদেনের ক্ষেত্রে আমদানি আদেশ ৯০ দিনের মধ্যে অনুমোদন করা হবে, যা করতে সাধারণত ১৮০ দিন লাগে।

এছাড়া নজিরবিহীন খরার কারণে কৃষি পণ্য উৎপাদন ও রফতানি কার্যক্রম মারাত্মকভাবে কমার পাশাপাশি চলতি বছর নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক অনিশ্চয়তার কারণে লাতিন আমেরিকার দেশটিতে ডলারের রিজার্ভ সংকটজনক পর্যায়ে নেমে গেছে। এদিকে নিজেদের আন্তর্জাতিক রিজার্ভকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে গত বছর নভেম্বরে চীনের সঙ্গে ৫০০ কোটি ডলারের মুদ্রা বিনিময় চুক্তি করেছে দেশটি।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...