1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :




কিশোরগঞ্জে চুরির অপবাদ দিয়ে পা ধরে ক্ষমা চাইতে বলায় বিষপানে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১৭৭ বার পঠিত

সরকার সালাহউদ্দিন সুমন: সুপারি চুরির অপবাদ দিয়ে শালিস বৈঠকে বৃদ্ধকে পা ধরে ক্ষমা চাইতে বলায় লজ্জায় অপমান ও ক্ষোভে ঘটনাস্থলে বিষপান করে আত্মহত্যা করেছেন আব্দুল হামিদ (৬৫)।

বুধবার (এপ্রিল) দুপুর আড়াইটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুল হামিদ মারা যান। এর আগে রোববার নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলী ইউনিয়নের উত্তর দুরাকুটি দক্ষিণ পাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উত্তর দুরাকুটি দক্ষিণ পাড়া গ্রামে মৃত বারান উদ্দিনের ছেলে নুরুল ইসলামের অতি সম্প্রীতি সুপারি চুরি হয়। নুরুল ইসলাম সুপারি গাছের নিচে স্যান্ডেল দেখে সন্দেহ করেন একই গ্রামের এনামুল হকের ছেলে পায়েলকে। এ ঘটনায় নুরুল ইসলাম প্রতিবেশী আবুল কালামকে সাথে নিয়ে পরদিন আবার পায়েলের বাড়িতে গিয়ে বিভিন্ন হুমকি দেন। এ সময় কালাম বলেন, নুরুল ইসলামের সুপারি না হয়ে আমার সুপারি চুরি গেলে আমি পায়েলের বাবা মায়ের হাড্ডি ভেঙে দিতাম। এ কথা শুনতে পেরে পায়েলের বৃদ্ধ চাচা ভ্যানচালক আব্দুল হামিদ প্রতিবাদ করে বলেন যে সুপারি চুরি করেছে আপনারা তাকে বলেন, এখানে কেন ঝগড়া বাধাতে এসেছেন। বৃদ্ধের এ কথার ক্ষোভ ধরে আবুল কালাম থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করেন। পুলিশ সরেজমিনে গেলে থানায় মামলা হয়েছে এ কথা কালাম বিভিন্ন লোকের কাছে প্রচার করেন। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গ্রাম্য মাতব্বর এমদাদুল হক ও ছফিয়া পাগলার নেতৃত্বে একটি শালিস বৈঠকের আয়োজন করে।

গত ৯ এপ্রিল শালিস বৈঠকে ওই বৃদ্ধকে নুরুল ইসলাম এবং আবুল কালাম শর্ত দেয় যে, পা ধরে ক্ষমা চাইলে আমরা এ ঘটনা মীমাংসা করব। তাদের এ কথায় বৃদ্ধ হামিদ অপমানিতবোধ করে প্রকাশ্যে সবার সামনে সেখানেই বিষপান করেন। এলাকাবাসী তাকে তাৎক্ষনিক কিশোরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুল হামিদ মারা যায় ।

কিশোরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাজীব কুমার রায় মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পায়েলের পরিবারের হুমকির কারণে আবুল কালাম থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করেন। ওই সাধারণ ডাইরি প্রসিকিউশন মামলার জন্য কোটের অনুমতির চেয়ে আবেদন করা হয়। বিষ পানে আ*ত্মহ*ত্যার বিষয়ে একটি ইউডি মামলা হবে।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...