1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  5. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  6. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৫১ পূর্বাহ্ন




কত রেটিং পেল বিশ্বকাপের সেই ‘বিতর্কিত’ পিচ

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩৬ বার পঠিত

ভারতের মাটিতে ত্রয়োদশ ওয়ানডে বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার প্রায় এক মাস হতে চলল। যেখানে স্বাগতিকদের হারিয়ে ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ শিরোপা জেতে অস্ট্রেলিয়া। এমন তিক্ত হারের সঙ্গে ওই সময় কিছু অভিযোগও জুটেছিল আয়োজক ভারতের কপালে। বিশেষ করে সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের বিরুদ্ধে পিচ বদলে খেলার অভিযোগ শোনা যায়। যার কিছুটা গুঞ্জন ছিল ফাইনালেও। এবার বিশ্বকাপে ব্যবহৃত সেসব পিচকে রেটিং দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

১৯ নভেম্বর আহমেদাবাদ নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ও ভারত। ওই ম্যাচের পিচকে আইসিসি অ্যাভারেজ বা গড়পড়তা মানের বলে রেটিং দিয়েছে। তবে ওই ম্যাচে রেফারি হিসেবে থাকা জিম্বাবুয়ের সাবেক ক্রিকেটার অ্যান্ডি পাইক্রফটের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী— ওই মাঠের আউটফিল্ড ‘খুব ভালো’। যেখানে দ্বিতীয় ইনিংসে কিছুটা ধীরগতির হয়ে আসা পিচে অস্ট্রেলিয়া ৬ উইকেটে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করেছিল।

তবে ফাইনালের পিচের চেয়েও ভারতের সেমিফাইনালের পিচ নিয়ে আইসিসির মতামত বেশি গুরুত্বপূর্ণ আয়োজক বিসিসিআইয়ের কাছে। নতুন একটি পিচে সেমিফাইনাল হওয়ার কথা থাকলেও, ম্যাচের দু’দিন আগে বেছে নেওয়া হয়েছিল একটি পুরনো পিচ। তাই তো ‘পিচ বদল’ নিয়ে বিশ্বকাপের সময় কম বিতর্ক হয়নি। আইসিসির পিচ কিউরেটরও প্রথম সেমিফাইনালের পিচ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। তবে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের সেই বিতর্কিত পিচকে ‘ভাল’ রেটিং দিয়েছে আইসিসি।

এছাড়া আরেকটি সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা মুখোমুখি হয়েছিল কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে। লো স্কোরিং ওই ম্যাচের পিচকেও ‘গড়পড়তা’ বলে উল্লেখ করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। যেখানে ৪৯.৪ ওভার খেলেও প্রোটিয়ারা অজিদের বিপক্ষে ২১২ রানে অলআউট হয়েছিল। পরে সে রান টপকাতে ৪৭.২ ওভারে প্যাট কামিন্সরা হারিয়েছিলেন ৭ উইকেট। তবে ইডেনের আউটফিল্ডকে ‘খুব ভালো’ রেটিং দিয়েছেন ম্যাচ রেফারির দায়িত্বে থাকা সাবেক ভারতীয় পেসার জাভাগাল শ্রীনাথ।

বিশ্বকাপের লিগ পর্বে রোহিত শর্মার দল যেসব পিচে খেলেছিল, সেগুলোরও রিপোর্ট দিয়েছে আইসিসি। যেখানে কলকাতার ইডেন গার্ডেন্স ছাড়াও লখনৌ, আহমেদাবাদ এবং চেন্নাইয়ের পিচ পেয়েছ ‘গড়পড়তা’ তকমা। দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, পাকিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওই পিচগুলোতে খেলেছিল ভারত। অর্থাৎ বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের খেলা মোট ছয়টি পিচের রিপোর্ট দিয়েছে আইসিসি। তার মধ্যে একমাত্র মুম্বাইয়ের ‘বিতর্কিত’ ২২ গজই ভালো বলে সাব্যস্ত হয়েছে।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...