1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঢাবির বিজয় একাত্তর হলের গেস্টরুমে অজ্ঞান শিক্ষার্থী রাজারহাটে ১২ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা ফের আটক ধর্ষন মামলায় আ’লীগ নেতা মুহিবুর ছাত্রী-শিক্ষক গভীর প্রেম, অভিযুক্ত প্রভাষক ও সহযোগী পিয়ন বরখাস্ত ফেনীতে দখলদারদের কবলে পশু জবাইখানা,উদ্ধারে তৎপর পৌর মেয়র মন্ত্রী–এমপিদের সন্তান ও স্বজনদের মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার না করার বিষয়ে আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্ত ৩০ এপ্রিল যশোর মনিরামপুরে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মুনজুরুল আক্তারের উপর সন্ত্রাসী হামলা, থানায় অভিযোগ ছাগলনাইয়ায় বৃষ্টি প্রার্থনায় সালাতুল ইসতেস্কা আদায় ও বিশেষ মুনাজাত সোনাগাজীতে প্রবাসীর স্ত্রী থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ,ছাত্রলীগ নেতাকে শোকজ কুষ্টিয়া দৌলতপুরে অগ্নিকান্ডে ৮টি ঘর ভষ্মিভূত




ইতালিতে ভয়াবহ বন্যা, মাঝপথে দেশে ফিরে গেলেন প্রধানমন্ত্রী

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: রবিবার, ২১ মে, ২০২৩
  • ৯৬ বার পঠিত

ইউরোপের দেশ ইতালিতে ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ। বন্যার তীব্রতা বাড়ায় জাপানে অনুষ্ঠিত জি-৭ সম্মেলনের মাঝপথেই দেশে ফিরে গেছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান রোববার (২১ মে) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বন্যার কারণে ইতালির উত্তরপূর্বাঞ্চলের ৩৬ হাজার মানুষ বাড়ি ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন। এছাড়া পানির নিচে তলিয়ে গেছে বিস্তৃত গ্রামাঞ্চল।

এবারের বন্যাকে ইতালির গত ১০০ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে।

এ সপ্তাহের শুরুতে অতি বর্ষণে ইতালিতে ১৪ জনের প্রাণহানি হয়। বৃষ্টিতে ইমিলিয়া রোমাগনা অঞ্চলের শহরের অলিগলিতে পানিতে ঢোকে। যা পুরো অঞ্চলটিকেই এখন একটি নদীতে পরিণত করেছে।

এখনো দেশটিতে প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টি হচ্ছে। এতে করে বন্যার যে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছিল সেটির সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

দেশের এমন ভয়াবহ অবস্থা দেখে গতকাল শনিবার জাপানের জি-৭ সম্মেলন থেকে দেখে ফিরে যান প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘সত্যি বলতে এমন কঠিন মুহূর্তে আমি ইতালি থেকে এত দূরে থাকতে পারব না।’

বর্তমানে বন্যা কবলিত মানুষকে উদ্ধারে ৫ হাজার উদ্ধারকর্মী নিয়োজিত আছেন। তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া। এছাড়া জি-৭ জোটের নেতাদেরও ধন্যবাদ জানান তিনি।

তিনি আজ রোববার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলো পরিদর্শনে যাবেন।

এদিকে বন্যার পানির উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে রেভেনার ঝুঁকিপূর্ণ গ্রামগুলো থেকে সাধারণ মানুষকে জরুরিভিত্তিতে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সাধারণ সময়ে ছয় মাসে যে পরিমাণ বৃষ্টি হয় সেখানে মাত্র ৩৬ ঘণ্টায় ইমিলিয়া রোমাগনায় সেই একই পরিমাণ বৃষ্টি হয়। যার প্রভাবে ১০০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার সৃষ্টি হয়েছে।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...