1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  5. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  6. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখে : নসরুল হামিদ মানুষের হাতে প্রয়োজনের তুলনায় বেশি টাকা রয়েছে: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী ৫ বছরে সরকারি চাকরি পেয়েছেন কতজন, জানালেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী নির্দেশনা না মানলে কঠোর শাস্তির হুঁশিয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ‘বিএনপির আটক কর্মীদের মুক্তির সঙ্গে নির্বাচনের সম্পর্ক নেই’ বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম বৃদ্ধি সরকারের একটি অমানবিক খেলা: রিজভী একা একা লাগে মাহিয়া মাহির রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখবে সরকার: কাদের চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য টগরকে নাগরিক সংবর্ধনা ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ৩৩টি গাঁজাগাছ সহ নারী গ্রেপ্তার




আন্তর্জাতিক গবেষণা সম্মেলনে জবির তরুণ শিক্ষার্থীরা

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: বুধবার, ১ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১০১ বার পঠিত

অমৃত রায়, জবি প্রতিনিধিঃ  ভারতের বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ে দেশভাগ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে অংশ নিতে ভারতে অবস্থান করছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) বাংলা বিভাগের একদল শিক্ষক ও শিক্ষার্থী। ‘১৯৪৭-এর দেশভাগ: সমাজ ও সাহিত্যে প্রভাব’ শীর্ষক সম্মেলনের আয়োজক বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ।

৩০ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর ত্রি-দিবসীয় এ সম্মেলনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. রাজিব মণ্ডল (রাহেল রাজিব)।

তিনি বলেন, ‘বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত  বিএইচইউ ভারতের অন্যতম গবেষণা নির্ভর বিশ্ববিদ্যালয় হিসেব দারুণ সুনাম রয়েছে, এখানে এসে শিক্ষার্থী ও গবেষকবৃন্দ দেশ-বিদেশের একাডেমিশিয়ানদের সাথে পরিচিত হবে, গবেষণায় উদ্বুদ্ধ হওয়ার সমান্তরালে এ যোগসূত্র তাঁদের গবেষণা চিন্তায় যেমন কাজ করবে তেমনি একজন শিক্ষার্থী হিসেবে এ শিক্ষাভ্রমণ উদারনৈতিক ও মানবিক করে তুলবে। প্রকাশিত কনফারেন্স প্রসিডিংস ও কনফারেন্স জার্নালে তাঁদের এ লেখা প্রকাশিত হয়েছে- যা গবেষকদের কাজে লাগবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান  অধ্যাপক ড. মিল্টন বিশ্বাস বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বিশ্ববিদ্যালয়কে উপস্থাপন করছে জেনে আমি আনন্দিত। আমি সার্বিক খোঁজ খবর রাখছি। শিক্ষার্থীদের মাঝে গবেষণার আগ্রহ জন্মানোর প্রবণতা ইতিবাচক।

আয়োজক এ সেমিনারের কনভেনার ড. সুবীর ঘোষ বলেন, “তিন মাসের অক্লান্ত পরিশ্রম আজ সার্থকতার মুখ দেখছে। তিনশোর কাছাকাছি অংশগ্রহণকারী এবং চারটি দেশের অংশগ্রহণকারী ও ভারতের ২৩ টি রাজ্যের অংশগ্রহণকারীদের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে এ কনফারেন্স এবং কনফারেন্স প্রসিডিংস ও কনফারেন্স পেপারগুলো দুই খণ্ডে প্রকাশিত দুটো বইয়ের মোড়ক উন্মোচনও হয়েছে- যা একটি বিরল ঘটনা। কারণ কনফারেন্স পেপার সমন্বয়ে অধিকাংশ বুকস/জার্নাল অপ্রকাশিত থেকে যায় নানা সীমাবদ্ধতায়। কিন্তু আমরা এ দুটো খণ্ড প্রকাশ করতে পেরেছি- সম্পাদনা পর্ষদ ও দ্বৈত নিরীক্ষক টিম অক্লান্ত পরিশ্রম করে প্রবন্ধগুলো জাজ করেছেন, পরামর্শ দিয়েছেন। গবেষকবৃন্দও পরামর্শমাফিক  যথাসময়ে প্রবন্ধ কারেকশন করে দেয়ায় সেটি সম্ভব হয়েছে। বই দুটোর প্রকাশক বাংলাদেশের প্রকাশনা সংস্থা নৈঋতা ক্যাফে।”

উল্লেখ্য, কনফারেন্সে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়সহ মোট ১৩ টি সরকারী ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৮ জন শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থী এ কনফারেন্সে অনলাইন ও অফলাইনে অংশগ্রহণ করছেন।



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...