1. news.rifan@gmail.com : admin :
  2. smborhan.elite@gmail.com : Borhan Uddin : Borhan Uddin
  3. arroy2103777@gmail.com : Amrito Roy : Amrito Roy
  4. hmgkrnoor@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Md Mohaiminul : Md Mohaiminul
  6. ripon11vai@gmail.com : Ripon : Ripon
  7. holysiamsrabon@gmail.com : Siam Srabon : Siam Srabon
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গুরুদাসপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন মাদারগঞ্জে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ পালিত আদালতের নির্দেশ অমান্য করে সাঁথিয়ায় মাতৃগর্ভে থাকা শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ গাজীপুরে গভীর রাতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, ১০টি দোকানের ক্ষয়ক্ষতি হোমনায় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীব উদ্বোধন সোনাগাজীতে কবরস্থানের জন্য জমি দান করে,নজির গড়লেন হিন্দু পরিবার হরিপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়ায় পৌর ছাত্রলীগের উদ্যোগে খাবার পানি ও স্যালাইন বিতরণ ইসরায়েলের সঙ্গে গুগলের চুক্তি, বিরোধিতা করায় চাকরি গেল ২৮ কর্মীর গাজা: বিমান হামলায় বেঁচে যাওয়া বালকের প্রাণ গেল সাহায্য নিতে গিয়ে




‘অশালীন অঙ্গভঙ্গি’র জন্য শাস্তি হচ্ছে না রোনালদোর

  • সর্বশেষ পরিমার্জন: শুক্রবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৯৮ বার পঠিত

রোনালদোর অশোভন অঙ্গভঙ্গি নিয়ে সৌদি আরবজুড়ে রীতিমতো ঝড় বইছিল। আশঙ্কা করা হচ্ছিল বড় ধরণের শাস্তি পেতে পারেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। অনেকে তো দাবি তুলেছিলেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি থেকেই তাকে বের করে দেওয়ার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তেমন কিছুই ঘটছে না। অশোভন আচরণের জন্য কোনো শাস্তিই পেতে হচ্ছে না রোনালদোকে।

ঘটনাটি ঘটে গত বুধবার রাতে সৌদি প্রো লিগের অতি গুরুত্বপূর্ণ আল–হিলালের বিপক্ষে ম্যাচে। এদিন মাঠ ছাড়ার আগে টানেলের কাছে কিছু সমর্থক তার উদ্দেশে ‘মেসি, মেসি’ বলে বিদ্রূপ করতে থাকে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নিজের বিশেষ অঙ্গে হাত দিয়ে তাদের উদ্দেশে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করেন রোনালদো।

রোনালদোর এমন আচরণ সৌদি আরবের ফুটবলে রীতিমতো ঝড় বইয়ে দেয়। বিশেষ করে সৌদির মতো রক্ষণশীল দেশে তার এমন অশালীন আচরণ রক্ষণশীল দেশটির অনেকে মানতে পারছিলেন না। এমনকি দেশটির সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ‘সমর্থকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারকারীকে বের করে দাও’ স্লোগান ছিল ট্রেন্ডিং। যদিও ক্লাব আল নাসরকে পাশে পায় রোনালদো। তাদের পক্ষ থেকে রোনালদোর ‘ইনজুরি’কেই দায়ী করা হয়। ক্লাবের পক্ষ থেকে বলা হয়, রোনালদোর কুঁচকিতে চোট রয়েছে। সেই কারণে ওই জায়গায় হাত দিয়েছিলেন তিনি। রোনালদো কোনো সমর্থককে অপমান করার জন্য এমন অঙ্গভঙ্গি করেননি বলেও দাবি আল নাসরের।

রোনালদোর উদ্দেশে গ্যালারি থেকে মেসির নামে জয়ধ্বনি ছুটে আসা অবশ্য নতুন নয়। এর আগেও এমন অভিজ্ঞতা হয়েছে তার। কিন্তু রোনালদোর হতাশা বাড়িয়েছে ক্লাবের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স। এরপর বিষয়টি খতিয়ে দেখে সৌদি ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের ডিসিপ্লিনারি এবং এথিক্স কমিটি। এর জন্য কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছে তারা।

একই দিনে আরেকবার বিতর্কে জড়ান রোনালদো। আল হিলালের বিপক্ষে বলতে গেলে পুরো ম্যাচেই নিষ্প্রভ ছিলেন আল নাসরের তারকা এ স্ট্রাইকার। কেবলমাত্র দ্বিতীয়ার্ধে একটি হলুদ কার্ড রোনালদোকে নজরে আনে। হিলালের এক খেলোয়াড়ের মাথার ওপর দিয়ে হেড করতে লাফিয়ে তাঁকে রীতিমতো জাপটে ধরে রেসলারদের কায়দায় ফেলে দিয়েছেন। এ ঘটনায় রেফারি তাকে হলুদ কার্ড দেখাতে দ্বিতীয়বার ভাবেননি। অবশ্য হলুদ কার্ড দেখানোই যথেষ্ট কি না, তা নিয়েও আলোচনা হচ্ছিল প্রচুর। সমর্থকদের একাংশের দাবি, রোনালদোর তারকা ইমেজের কারণেই ‘গুরু পাপে লঘু দণ্ড’ দেওয়া হয়েছে। এবারও কি ঠিক একই কারণেই বেঁচে গেলেন?



সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আরও খবর...