1. info.nagorikvabna@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  2. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul Islam : Mohaiminul Islam
  3. ischowdhury90@gmail.com : Riazul Islam : Riazul Islam
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৪১ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশব্যাপী প্রচার ও প্রসারের লক্ষে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা সিভি পাঠান info.nagorikvabna@gmail.com অথবা হটলাইন 09602111973-এ ফোন করুন।
শিরোনাম :
জয় দিয়েই শুরু টাইগারদের রানীশংকৈলে ভকরগাঁও প্রা: বিদ্যালয়ে কম্বল বিতরণ দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীতে অন্ধকার কুঠুরি থেকে ১৪ জন কিশোরী উদ্ধার রৌমারীতে ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের দায়িত্ব গ্রহণ কালিয়াকৈরে গৃহহীন বিধবার জন্য ঘর নির্মাণ করে দিলেন পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি স্বর্ণালঙ্কার লুটের অভিযোগে মুন্সীগঞ্জ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেপ্তার ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি কর্তৃক শ্রেষ্ঠ উদ্ধারকারী অফিসার নির্বাচিত হলেন,ডিবি ওসি – শাহ কামাল করোনায় সাড়ে আট মাসে সর্বনিম্ন মৃত্যু দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে কাজ করলে কঠোর ব্যবস্থা : কাদের রাত ১০টায় শপথ নেবেন বাইডেন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা

আর ৬ মাস বাঁচতে চেয়েছিলেন আবদুল কাদের: হানিফ সংকেতের আবেগঘন স্ট্যাটাস

  • সর্বশেষ পরিমার্জন : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

হুমায়ুন আহমেদের লেখা ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকে ‘বদি’ চরিত্রে অভিনয় করে সাড়া ফেলেছিলেন অভিনেতা আবদুল কাদের। এই একটি চরিত্রই তাকে খ্যাতি এনে দিয়েছিল, আর পিছু তাকাতে হয়নি। পরে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদিতে নিয়মিত অভিনয় করে গেছেন তিনি। দর্শক তার অভিনয় পছন্দ করতেন। এই দর্শকপ্রিয়তাই তাকে চাকরির ফাঁক বের করে শুটিংয়ে টেনে নিয়ে আসত। দর্শকদের ভালোবাসায় অসুস্থ অবস্থায়ও ইত্যাদির সবশেষ ইপিসোডে অভিনয় করে গেছেন তিনি। 

তাই এ অভিনেতাকে নিয়ে ইত্যাদির নির্মাতা ও উপস্থাপক হানিফ সংকেতের টান একটু বেশিই বটে। আবদুল কাদেরের মৃত্যুকে কিছুতেই মানতে পারছেন না জনপ্রিয় এ ‍উপস্থাপক। ২৬ ডিসেম্বর কাদেরের মৃত্যুর সংবাদ শুনে থমকে দাঁড়ান হানিফ সংকেত। 

বিকাল ৫টা ১৩ মিনিটে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে শোক প্রকাশ করে হানিফ সংকেত একটি আবেগঘন স্ট্যাটাস দেন। তিনি লেখেন– ‘চলে গেলেন ‘ইত্যাদি’র আরও একজন নিয়মিত শিল্পী, সবার প্রিয় অভিনেতা আবদুল কাদের। 
প্রায় পঁচিশ বছর ধরেই তিনি ‘ইত্যাদি’র অত্যন্ত জনপ্রিয় পর্ব ‘মামা-ভাগ্নে’র ‘মামা’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তিনি নিজে যেমন এই চরিত্রটিকে ভালোবাসতেন, তেমনি দর্শকদের কাছেও প্রিয় ছিল এই ‘মামা’ চরিত্রটি। অত্যন্ত নিয়মতান্ত্রিক ও সুশৃঙ্খল জীবনযাপন করতেন কাদের ভাই। দেখে কখনও মনেই হয়নি এত বড় একটি রোগ তার শরীরের এতটা ক্ষতি করে ফেলেছে। গত ৩০ অক্টোবর প্রচারিত ‘ইত্যাদি’ই ছিল কাদের ভাইয়ের জীবনের শেষ অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটি ধারণের সময়ই কাদের ভাইকে কিছুটা অসুস্থ ও মলিন দেখাচ্ছিল। আগের সেই উচ্ছ্বাস ছিল না। ধারণ শেষে যাওয়ার সময় বলেছিলেন– তার শরীরটা ভালো যাচ্ছে না। দোয়া চাইলেন। 

এর পর হঠাৎ করে শুনলাম তিনি চেন্নাইয়ের হাসপাতালে। ভিডিও কলে কথা হলো। মুখে খোঁচা খোঁচা দাড়ি, নাকে অক্সিজেন মাস্ক। কাদের ভাইয়ের এই চেহারা দেখব কখনও কল্পনাও করিনি। আমাকে দেখে আবেগে কেঁদে ফেললেন। এর পর চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে নামার পর আবার কথা হলো। বললেন, ‘দেশের মাটিতে এসেছি, দোয়া করবেন যাতে আবার একসঙ্গে কাজ করতে পারি।’ আবারও সেই কান্নাভেজা কণ্ঠ। আরও ৬টি মাস বাঁচতে চেয়েছিলেন কাদের ভাই কিন্তু মৃত্যু তাকে সে সুযোগ দেয়নি। এত দ্রুত যে তিনি এতটা অসুস্থ হবেন এবং আমাদের ছেড়ে চলে যাবেন তা কল্পনাও করিনি। 

কাদের ভাই শুধু ‘ইত্যাদি’র নিয়মিত শিল্পীই ছিলেন না, ছিলেন ‘ইত্যাদি’ পরিবারের একজন সদস্য। গুণী এই অভিনেতার মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। আমরা তার জন্য মাগফিরাত কামনা করছি এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

রোববার রাতে হানিফ সংকেত আরও একটি স্ট্যাটাস দেন। যেখানে ইত্যাদিতে অভিনীত কাদেরের শেষ চরিত্রটি সম্পর্কে লেখা হয়েছে। তিনি ইপিসোডের ভিডিওটিও ফেসবুকে শেয়ার করেছেন। 

হানিফ সংকেত লেখেন– ‘গত ২৯ অক্টোবর, ২০২০-এ প্রচারিত ইত্যাদিই ছিল প্রয়াত অভিনেতা আবদুল কাদের অভিনীত শেষ অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটি ধারণ করা হয়েছিল গত ২২ সেপ্টেম্বর। সেদিনও কাদের ভাই বেশ অসুস্থ ছিলেন। তার পরও ইত্যাদির প্রতি ভালোবাসার কারণে তিনি অভিনয় করেছেন এবং এটিই ছিল তার জীবনের শেষ অভিনয়। গত ইত্যাদিতে প্রচারিত ‘মামা-ভাগ্নে’ পর্বটি আপনাদের অনুরোধে আবারও দেয়া হলো।’

মরণব্যাধি ক্যান্সারের কাছে হার মেনে শনিবার না ফেরার দেশে পাড়ি জমান আবদুল কাদের।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

আরো সংবাদ পড়ুন

নাগরিক ভাবনা লাইব্রেরী

Sat Sun Mon Tue Wed Thu Fri
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031