1. info.nagorikvabna@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  2. emranhossain9555@gmail.com : Emran Hossain : Emran Hossain
  3. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul Islam : Mohaiminul Islam
  4. ischowdhury90@gmail.com : Riazul Islam : Riazul Islam
সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪০ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
দেশব্যাপী প্রচার ও প্রসারের লক্ষে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা সিভি পাঠান info.nagorikvabna@gmail.com অথবা হটলাইন 09602111973-এ ফোন করুন।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে দুই বোনের আত্মহত্যা

  • সর্বশেষ পরিমার্জন : শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৮ বার পড়া হয়েছে

ডাঃ এম এ মান্নান কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আরিয়া ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামে মোয়াজ্জেমের মেয়ে মুক্তা( ১৫) ও মুনতাজের মেয়ে রুমা ( ২৫) নামে দুই বোনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।


পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, কিছুদিন আগে একই এলাকায় একটি মেয়ে অপহরণ হয় সেই মেয়েটি মুক্তার আপন মামাতো বোন অপহরণ হওয়ার পর রাজীব নামে একটি ছেলেকে প্রধান আসামি ও মুক্তা অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার সহযোগীর স্বামী বাদী হয়ে দৌলতপুর থানায় একটি মামলা হয়। মামলা হওয়ার কারণে মুক্তা প্রায় দুই মাস পার্শ্ববর্তী উপজেলা মিরপুরে মিরপুরে দুলাভাই খাদিমুল ইসলামের বাড়িতে আত্মগোপনে থাকে।

সেখানে গিয়ে মুক্তা হয়তো আরেকটি ছেলের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। পরে মুক্তা আদালত থেকে জামিন নিয়ে নিজ বাড়িতে ফিরে আসে।

শুক্রবার সকালে মুক্তার চাচাতো বোন মমতাজ সরদারের মেয়ে খাদিমুল এর স্ত্রী রুমা স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাসায় বেড়াতে আসেন।
বেড়াতে এসে মুক্তার পরিবারের লোকজনের সাথে কথা কাটাকাটি হয় একপর্যায়ে মুক্তা গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। মুক্তার আত্মহত্যা করার আধা ঘন্টা পরে চাচাতো বোন রুমা গলায় রশি নিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এলাকাবাসী জানান এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় শোকের ছায়া বিরাজ করছে। এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত শাহাদৎ হোসেন জানান মুক্তা ও রুমা লাশ উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ ময়নাতদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

খুঁজুন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৫৯,২০৪,১৩০
সুস্থ
৪০,৯৭৩,০০৫
মৃত্যু
১,৩৯৭,২৪৭