1. info.nagorikvabna@gmail.com : Rifan Ahmed : Rifan Ahmed
  2. emranhossain9555@gmail.com : Emran Hossain : Emran Hossain
  3. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul Islam : Mohaiminul Islam
  4. ischowdhury90@gmail.com : Riazul Islam : Riazul Islam
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০১:১৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
দেশব্যাপী প্রচার ও প্রসারের লক্ষে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা সিভি পাঠান info.nagorikvabna@gmail.com অথবা হটলাইন 09602111973-এ ফোন করুন।

বিকল্প মাধ্যমে ব্যস্ত বিদ্যা সিনহা

  • সর্বশেষ পরিমার্জন : মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৩ বার পড়া হয়েছে

জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম অভিনয়ে নেই অনেকদিন ধরেই। তবে করোনাকালে তিনি বিভিন্ন ধরনের ঐচ্ছিক কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকছেন।

ফিটনেস ঠিক রাখার জন্য জিমনেশিয়ামে যাওয়া, নিজের ইউটিউব চ্যানেলের জন্য কনটেন্ট তৈরি করার কাজ নিয়েই ব্যস্ততা তার। তবে এগুলোর পাশাপাশি বিভিন্ন বেসরকারি কোম্পানির কর্পোরেট শোতে উপস্থিত হচ্ছেন মাঝে মধ্যেই।

তেমনই একটি অনুষ্ঠানে গত ৯ অক্টোবর হাজির হয়েছিলেন। একটি মোবাইল ফোন সেট বাজারজাত করা উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্যমণি হয়ে উপস্থিত ছিলেন মিম।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একটি আন্তর্জাতিক মানের মোবাইল সেট কোম্পানির নতুন সেট বাজারজাত করার অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলাম। বেশ ভালো আয়োজনই ছিল সেটি। যেহেতু অভিনয়ের ব্যস্ততা নেই এখন তাই মাঝে মধ্যে এ ধরনের অনুষ্ঠানে হাজির হচ্ছি। ঘর বন্দি থাকার চেয়ে বাইরে গেলে কিংবা আড্ডা দিলে মন ভালো হয়। হয়ত আর কিছুদিন পরেই শুটিংয়ে ফিরতে হবে। তখন তো নিয়মিতই বাইরে থাকতে হবে।

এদিকে মিম অভিনীত বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘ব্ল্যাক’ নামের একটি ছবি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছে সম্প্রতি। এছাড়া রায়হান রাফির পরিচালনায় ‘পরাণ’ নামের একটি ছবির কাজ মিম শেষ করেছেন করোনাকাল আসার আগেই।

একই পরিচালকের ‘ইত্তেফাক’ নামের আরেকটি ছবির কাজ অসম্পূর্ণ অবস্থায় আছে। এসবের পাশাপাশি নতুন কয়েকটি ছবিতে অভিনয়ের বিষয়ে কথা চূড়ান্ত হয়েছে মিমের। শিগগিরই এগুলোর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে বলে জানিয়েছেন এই মডেল ও অভিনেত্রী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

খুঁজুন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪২,৯৫২,৫৩৪
সুস্থ
৩১,৬৭৪,৭৬৪
মৃত্যু
১,১৫৪,৯৬৪